শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১, ০৯:৪৪ অপরাহ্ন

শিরোনাম:

লাখ ভক্তের শ্রদ্ধায় শেষ হলো শ্রীদেবীর অন্তেষ্টিক্রিয়া

ডেক্স নিউজ –  আজ বুধবার বিকেল পাঁচটার দিকে বলিউডের সুপারস্টারদের উপস্থিতিতে শেষ হলো ভারতের জনপ্রিয় অভিনেত্রী শ্রীদেবীর অন্তেষ্টিক্রিয়া । ছয়টা নাগাদ অন্তেষ্টিক্রিয়া শেষ হয়। এ ছাড়া অসংখ্য ভক্ত প্রিয় অভিনেত্রীকে শেষ বিদায় জানাতে এসেছিলেন ।

এরপর প্রয়াত নায়িকাকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে একে একে সেখানে যান অসংখ্য বলিউড তারকা । আর তাদের ছাপিয়ে গিয়েছে শ্রীর ভক্তরা । অনেকেই স্মৃতিচারণ করেছেন। অনেকে আবার শ্রীর ফিল্মের গান গেয়ে শুনিয়েছেন । ভক্তদের জন্য আজ সকাল সাড়ে ৯টায় খুলে দেওয়া হয় মুম্বাইয়ের লোখণ্ডওয়ালার সেলিব্রেশন স্পোর্টস ক্লাবের দরজা ।

‘লমহে’ ছবির শুটিং-এর সময়ই শ্রীদেবী ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন তার মৃত্যুর পর যেন সব কিছুই যেন সাদা কাপড়ে মুড়ে ফেলা হয়। নায়িকার শেষ ইচ্ছা অনুযায়ী তাই আজ সব কিছুই সাজানো হয়েছিল তার প্রিয় রং সাদায়। সাদা ফুল দিয়ে সাজানোর পাশাপাশি শ্রীদেবীর বাংলো ‘ভাগ্য’ও মুড়ে ফেলা হয়েছিল সাদা কাপড়ে। অন্ত্যেষ্টিতেও সকলকে অনুরোধ করা হয়েছিল সাদা পোশাকে আসতে। সেই মতো প্রায় সব বলিউড তারকাকেই এ দিন দেখা গিয়েছে সাদা পোশাকে লোখণ্ডওয়ালার সেলিব্রেশন স্পোর্টস ক্লাবে।

আজ সকালে সবার আগে স্পোর্টস ক্লাবে পৌঁছান প্রযোজক-পরিচালক কর্ন জোহর। আসেন শ্রীদেবীর দেওর সঞ্জয় কপূরও। ক্রমশই ভিড় জমতে থাকে স্পোর্টস ক্লাবের বাইরে। স্বপ্নের নায়িকাকে বিদায় জানাতে আজ অফিস ছুটি নিয়ে চলে এসেছিলেন অগণিত ভক্ত। রাত ১২টা থেকেও অধীর অপেক্ষায় কেউ কেউ লাইন দিয়েছিলেন স্পোর্টস ক্লাবের সামনে। এখানেই দুপুর পৌনে ৩টা পর্যন্ত শায়িত ছিল শ্রীদেবীর মরদেহ। এর পর মরদেহ নিয়ে রওনা দেওয়া হয় ভিলে পার্লের সেবাসমাজ শ্মশানের উদ্দেশে। সেখানে সাড়ে ৩টায় শেষকৃত্য শুর হওয়ার কথা ছিল। তবে তা শুরু হয় সওয়া ৫টা নাগাদ।

প্রায় একঘণ্টা শেষ কৃত্যের আনুষ্ঠানিকতা শেষে একে একে শ্মশান ছাড়েন সঞ্জয় লীলা ভন্সালী, রাজকুমার হিরানি, সুধীর মিশ্র, বিধু বিনোদ চোপড়া, জে পি দত্ত, নাগমা, বিদ্যা বালন, সিদ্ধার্থ রায় কপূর-সহ অসংখ্য বলি‌উড তারকা।বলিউডে শিশুশিল্পীর চরিত্রে তার যাত্রা । তারপরের ইতিহাস সবার জানা । ২০১৩ সালে চতুর্থ গুরুত্বপূর্ণ রাষ্ট্রীয় সম্মাননা ‘পদ্মশ্রী’তে ভূষিত হন তিনি। মৃত্যুকালে শ্রীদেবীর বয়স ছিল ৫৪ বছর । অভিনেত্রী শ্রীদেবীর আসল নাম শ্রী আম্মা ইয়াঙ্গার আয়পান।

১৯৭৫ সালে ১৩ বছর বয়সে ‘জুলি’ সিনেমার মধ্য দিয়ে ইন্ডাস্ট্রিতে প্রবেশ । এরপর একে একে চান্দনী, নাগিনা, সাদমা, জানবাজ, কারমা, মিস্টার ইন্ডিয়াসহ অসংখ্য সিনেমায় তিনি অভিনয় করেছেন। নন্দিত হয়েছেন দর্শকের মনে ছাপ ফেলতে সক্ষম হওয়ার কারণে। ১৯৮৩ সালের তাঁর অভিনীত জনপ্রিয় ছবি ‘সাদমা’ বলিউডে তাকে স্বতন্ত্র স্থান দেয় । সমালোচকদের মত, শ্রীদেবী অভিনীত ‘লমহে’ ভারতীয় সিনেমার ১০০ বছরের ইতিহাসে সেরা ১০টি রোমান্টিক ছবির মধ্যে অন্যতম৷ ২০১৩ সালে ‘পদ্মশ্রী’ পেয়েছিলেন তিনি । শ্রীদেবী তামিল, তেলুগু, হিন্দি, মালয়ালম এবং কিছু কন্নড় সিনেমায় সমান তালে কাজ করেছেন ।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved ©2020 jubokantho24.com
Design & Developed BY Masum Billah