মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ০৩:৩৫ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম:
রাবেতাতুল ওয়ায়েজীন বাংলাদেশ মাওলানা মামুনুল হকের পাশে থাকবে। গ্রেফতার ঝুঁকিতে হেফাজত নেতৃবৃন্দ : করণীয় কি? সৈয়দ শামছুল হুদা মসজিদে তারাবির নামাজে ২০ জনের বেশি নয় স্বাস্থ্যবিধি মেনে কুরআন নাজিলের মাসে হিফজুল কুরআন ও ক্বেরাত বিভাগ খুলে দিন -আল্লামা মুফতি রুহুল আমীন ২৯শে মে জাতীয় ওলামা মাশায়েখ সম্মেলন গণগ্রেফতার ও হয়রানী বন্ধ করুন: মামুনুল হক মানহানী ও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করতে পারবেন: সুপ্রিমকোর্ট আইনজী ৩১৭ বছরের পুরনো মসজিদ উদ্বোধন করলেন আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী পাথরের ট্রাকে ২কোটি টাকার হেরোইন উদ্ধার – আটক২ সাংসদ বেনজীর আহমেদ করোনায় আক্রান্ত সাভারে জোর করে বের করে দেয়া ভাড়াটিয়াদের রক্ষা করলো পুলিশ

রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানের অস্ত্র এখন যুক্তরাষ্ট্রের হাতে

ডেক্স নিউজ – রোহিঙ্গাদের নিয়ে আন্তর্জাতিক মহলের নানান ভাবনা মধ্যে উল্লেখযোগ্য ভাবনাটি হলো ;যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেসে একজন প্রতিনিধি উত্থাপন করেন যে, মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যকে বাংলাদেশের সঙ্গে যুক্ত করে দেওয়া হোক । রোহিঙ্গা সমস্যার তড়িৎ সমাধান হিসেবে এই প্রস্তাব দেওয়া হয়। যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেসে গত ১৩ জুন দক্ষিণ এশিয়ার জন্য বাজেট বিষয়ক শুনানিতে এই প্রস্তাব উঠে । বাংলাদেশের কয়েকটি সংবাদপত্র ছাড়াও যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেশনাল কার্যবিবরনীতে এই প্রস্তাবের উল্লেখ পাওয়া যায় ।
মূলতঃ কংগ্রেসের প্রতিনিধি পরিষদের এশিয়া প্রশান্ত-মহাসাগরীয় উপকমিটির চেয়ারম্যান ব্রাড শেরম্যান মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যকে বাংলাদেশের সঙ্গে যুক্ত করার বিষয়টি বিবেচনার জন্য পররাষ্ট্র দপ্তরের প্রতি আহ্বান জানান। ব্রাড শেরম্যান বলেন, সুদান থেকে দক্ষিণ সুদানকে আলাদা করে একটি নতুন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠাকে যুক্তরাষ্ট্র যদি সমর্থন করতে পারে, তাহলে মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যের রোহিঙ্গাদের নাগরিক অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য কেন একই ধরনের পদক্ষেপ নেওয়া যাবে না। মিয়ানমারে একটি গণহত্যাও সংঘটিত হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন যে মিয়ানমার যদি রাখাইনের রোহিঙ্গা নাগরিকদের দায়িত্ব নিতে না পারে, তাহলে যে দেশ তাদের দায়িত্ব নিয়েছে, সেই বাংলাদেশের সঙ্গে রাখাইনকে জুড়ে দেওয়াই তো যৌক্তিক পদক্ষেপ। জানা গেছে, ট্রাম্প প্রশাসনের প্রতিনিধিত্বকারী ক‚টনীতিকেরা অবশ্য কংগ্রেসম্যান শেরম্যানের বক্তব্যকে সমর্থন বা নাকচ কোনোটিই করেননি।
বিষয়টি নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে চলছে চুলচেড়া বিশ্লেষণ । যদিও এখনো পর্যন্ত বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয় থেকে কোন বক্তব্য সামনে আসেনি । আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষকরা মনে করছেন ,এমন ধরণের বক্তব্য মূলতঃ রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে মায়ানমা্রের উপড় চাপ প্রয়োগ করা । আর এমন প্রস্তাব যুক্তরাষ্ট্রের কংরেসে পাশ হলেও বাস্তবায়ন করবে এমন প্রশ্ন সামনে আসবে । নিশ্চয় বাংলাদেশ কূটনৈতিক পন্থার বায়রে অন্য সিন্ধান্তে যেতে চাইবে না । তবে বিশোষজ্ঞরা মনে করছেন এই প্রস্তাব জাতিসংঘ পর্যন্ত গড়াতে পারে ।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved ©2020 jubokantho24.com
Design & Developed BY Masum Billah