সোমবার, ২৬ Jul ২০২১, ০৩:১৭ পূর্বাহ্ন

ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের আঘাত সুন্দরবনে

সারাদেশ ডেস্ক ॥

সুন্দরবনের বাংলাদেশ অংশে আঘাত হেনেছে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল। বঙ্গোপসাগর উপকূলে দুপুর ১২টা থেকে ঝড়ো হাওয়া শুরু হলেও শনিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের অগ্রবর্তী অংশ সুন্দরবনের সাতক্ষীরা, খুলনা ও বাগেরহাট অংশে আঘাত হানতে শুরু করেছে। একই সাথে বেড়েছে ৪ থেকে ৫ ফুট পানির উচ্চতা। এখন ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের অগ্রবর্তী অংশ সুন্দরবনের বঙ্গবন্ধু আইল্যান্ড, হিরণ পয়েন্ট, দুবলারচর, মেহের আলীর চর, অফিসকিল্লা, মাঝেরচর, আলোরকোল, মরণেরচরে আছড়ে পড়েছে। ১২০ কিলোমিটার বেগে ঝড়ো হাওয়া বইছে। সময়ের সাথে পাল্লা দিয়ে ক্রেমেই বাড়ছে ঝড়ের তিব্রতা। তছনছ করে দিয়েছে দুবলার চরের অস্থায়ী শুঁটকি পল্লী। ঘূর্ণিঝড় প্রস্তুতি কর্মসূচির (সিপিপি) দুবলারচর ভিএইচএফ স্টেশনের অপারেটর মো. কাশেম এসব তথ্য জানিয়েছেন।

তার সাথে বঙ্গোপসাগরে নিখোঁজের ৩২ ঘন্টা পর জেলে বেলাল (৪০) এর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার বেলা তিনটায় বঙ্গোপসাগরের কুয়াকাটা সংলগ্ন ঝাউবাগান এলাকার সৈকত থেকে মহিপুর থানা পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করেছে। জেলে বেলাল পঞ্চগড় জেলার দেবীগঞ্জ থানার লক্ষীরহাট গ্রামের কুরবান আলীর পুত্র বলে জানা গেছে।

পুলিশ সুত্রে জানা গেছে, ঘূর্ণিঝড় বুলবুল’র প্রভাবে সাগর উত্তাল হয়ে ওঠায় মাছ শিকার বন্ধ করে নিরাপদ আশ্রায় উপকূলে ফেরার পথে এফবি মা কুলসুম নামের ট্রলারটি শুক্রবার (০৮ নভেম্বর) সকাল সাতটায় প্রচণ্ড ঢেউয়ের কবলে পড়ে।

এসময় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ট্রলার থেকে সাগরে পড়ে যায় বেলাল। তাৎক্ষনিকভাবে বেলালকে উদ্ধারের জন্য স্থানীয়ভাবে চেষ্টা চালানো হলেও তার সন্ধান পাওয়া যায়নি। শনিবার বেলা তিনটায় কুয়াকাটা সংলগ্ন ঝাউবাগান এলাকার সৈকতের বালু চরে একটি লাশ পড়ে থাকতে দেখে মহিপুর থানা পুলিশকে অবহিত করে স্থানীয়রা। পরে মহিপুর থানা পুলিশসেখান থেকে জেলে বেলালের লাশ উদ্ধার করে।

মহিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সোহেল আহম্মেদ জানান, এফবি মা কুলসুম ট্রলারের মালিক আবুল কলাম জেলে বেলালের লাশ সনাক্ত করেছে। আইনী প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে বেলালের লাশ তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

Eid Mubarak
© All rights reserved ©2020 jubokantho24.com
Website maintained by Masum Billah