বৃহস্পতিবার, ০৬ মে ২০২১, ১২:২৮ অপরাহ্ন

শিরোনাম:
বেডে বেডে লাশ, আইসিইউতে তালা দিয়ে পালিয়েছেন ডাক্তার-নার্স-স্টাফরা ‘ফ্রি ফায়ার গেম’ নিয়ে দ্বন্দ্ব, ছুরিকাঘাতে তিন বন্ধু জখম গ্রাম-গঞ্জে বাসা-বাড়ি কিংবা মসজিদ মাদরাসা বানাতেও অনুমতি লাগবে সরকারকে ফাঁকি দেওয়া যায়, মৃত্যুকে নয় : কাদের হৃদয়বিদারক দৃশ্য, করোনা আক্রান্ত বাবাকে পানি দিতে গেলেও আটকাচ্ছেন মা! (ভিডিও) ভারতের বিধানসভা নির্বাচনে ১১২ মুসলিম প্রার্থীর জয় ‘আসতে পারে তৃতীয় ঢেউ, লকডাউনেও কাজ হবে না’ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের পর যা বললেন হেফাজতে ইসলামের নেতারা আবারও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বাসায় হেফাজত নেতারা তাণ্ডবের বিচার চেয়ে পদত্যাগ করা সেই হেফাজত নেতা গ্রেপ্তার

কওমি মাদরাসায় বাড়ছে সন্ত্রাসী আক্রমণ, উদ্বিগ্ন আলেমসমাজ

মুনশী নাঈম:

কওমি মাদরাসায় দুর্বৃত্তদের সন্ত্রাসী হামলা বেড়েছে। গত এক সপ্তাহে অন্তত তিনটি মাদরাসায় আক্রমণ হয়েছে। ছাত্র-শিক্ষকদের লাঞ্ছিত করা হয়েছে, মাদরাসার জিনিসপত্র লুট করা হয়েছে।

গত ২৯ ডিসেম্বর বলাৎকারের মিথ্যা অভিযোগ তুলে চাঁদপুরের কচুয়ায় সাতবাড়িয়া তা’লীমুল কোরআন মাদরাসা ভাঙচুর করা হয়, শিক্ষকদের মারধর করা হয়। ৪ জানুয়ারি চাঁদা না দেয়ায় ফটিকছড়ির মাইজভান্ডারস্থ মান্নানীয়ার পশ্চিম নানুপর দারুচচ্ছালাম ঈদগাহ মাদরাসায় আক্রমণ করে স্থানীয় যুবলীগ নেতা হাসান। এই যুবলীগ নেতার হামলায় প্রায় দশ জন ছাত্র আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। মাদরাসার ছাত্রদের বাঁচাতে এসে গুলিবিদ্ধ হয় ৬ জন। অভিযোগ রয়েছে, তারা মাদরাসা থেকে পাঁচ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। চাঁদা না দেয়ায় এ সন্ত্রাসী হামলা চালানো হয়।

কক্সবাজার সদর উপজেলার অন্তর্গত পি.এম.খালী ইউনিয়নের তোতকখালী সিকদার পাড়া ( হাঃইঃ রহমানিয়া) মাদ্রাসায় আক্রমণেরও অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় মেম্বার তাজমহলের বিরুদ্ধে। মেম্বার এসে ছাত্রদেরকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। ছাত্রদের ওপর অতর্কিত হামলা চালায় । মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক , শ্রদ্ধাভাজন আলেম মাওলানা কাজী জাফর আলম সাহেব এবং মুফতি আসাদের মা- বোন নিয়ে অশালীন ভাষায় গালিগালাজ করে। ছাত্রদের দ্বীনি কিতাবাদি ছুড়ে ফেলে দেয়। মাদ্রাসার আসবাবপত্র চেয়ার, টেবিল ইত্যাদি কুড়াল দ্বারা ভেঙ্গে ফেলে।

ক্রমবর্ধমান এই সিরিজ হামলায় উদ্বিগ্ন দেশের উলামায়ে কেরাম। হেফাজত প্রধান আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী চাঁদপুরে মাদরাসার শিক্ষক লাঞ্ছনার ঘটনায় অভিযুক্তদের বিচারের আওতায় আনার জোর দাবি জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, মিথ্যা অভিযোগ তুলে মাদরাসা ভাংচুর করে শিক্ষককে মারধর ও পুলিশে সোপর্দ করার ঘটনা চরম উদ্বেগজনক। এসব মিথ্যা অভিযোগ উত্থাপন করে কওমী মাদরাসাকে কলুষিত করাই রাম-বামদের মূল লক্ষ্য উদ্দেশ্য। এ ঘটনা কওমী মাদরাসা ও হক্কানী ওলামায়ে কেরামের বিরুদ্ধে চলমান গভীর ষড়যন্ত্রের অংশ। অনতিবিলম্বে মিথ্যা অভিযোগে গ্রেফতার হওয়া সেই মাদরাসার শিক্ষককে সসম্মানে মুক্তি দিতে হবে। মিথ্যা অভিযোগে একজন হাফেজে কুরআনকে বেধরক মারধর করা, মাথা ন্যাড়া করে পুলিশে সোপর্দ করার ঘটনার নিন্দা ও ধিক্কার জানানোর ভাষা আমার নেই। নিরপেক্ষ তদন্তের মাধ্যমে হাফেজে কুরআন শিক্ষককে লাঞ্ছিত করার ঘটনায় অভিযুক্তদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে। মাদরাসা ভাংচুরের যথাযথ ক্ষতিপূরণ দিতে হবে এবং সম্মানহানির জন্য ঐ শিক্ষক ও মাদরাসা কর্তৃপক্ষের নিকট দোষীদের প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে হবে।

জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ-এর সহসভাপতি শায়খুল হাদীস আল্লামা উবায়দুল্লাহ ফারুক বলেছেন, ‘চাঁদপুরে মাদরাসা শিক্ষক লাঞ্ছিতের ঘটনার বিচারবিভাগীয় তদন্ত করে দোষীদের কঠোর শাস্তি দিতে হবে। পাশাপাশি ক্ষতিপূরণ দানেরও জোর দাবি জানাচ্ছি।’ আল্লামা উবায়দুল্লাহ ফারুক অবিলম্বে মিথ্যা অভিযোগে গ্রেফতার হওয়া সেই মাদরাসার শিক্ষককে সসম্মানে মুক্তি দেওয়ারও দাবি করেন।

চট্টগ্রাম ফটিকছড়ি পশ্চিম নানুপুর দারুস সালাম ঈদগাহ মাদরাসায় সন্ত্রাসী হামলা ৬ জন গুলিবিদ্ধের ঘটনা এবং চাঁদপুরের কচুয়ায় মিথ্যা অপবাদে মাদরাসা শিক্ষককে এলাকার উগ্র সন্ত্রাসী কর্তৃক মাথার চুল কেটে এবং পিটিয়ে আহত করার ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের আমীরে শরীয়ত আল্লামা আতাউল্লাহ হাফেজ্জী। তিনি বলেন, কতিপয় ইসলাম বিদ্বেষী লালিত সন্ত্রাসী গোষ্ঠী বিভিন্ন অজুহাতে আলেমদেরকে লাঞ্চিত করছে। যারা আইন নিজের হাতে তুলে নিয়ে নিরপরাধ আলেমকে নির্যাতন করেছে তাদেরকে অবিলম্বে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে।

এছাড়াও এসব আক্রমণের নিন্দা জানিয়েছেন এবং সন্ত্রাসীদের বিচার দাবি করেছেন আল্লাম নুরুল ইসলাম জিহাদী, মাওলানা মাহফুুজুল হক, আল্লামা মামুনুল হকসহ আরও অনেক আলেম। তার বলেছেন, এ দেশের জনগণ মাদ্রাসা ও আলেমপ্রিয়। দ্বীন ইসলামের সংরক্ষণে কওমি মাদ্রাসা ও ওলামায়ে কওমিয়ার অবদান অনস্বীকার্য। দেশের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব রক্ষায় কওমি মাদ্রাসা অনেক অবদান রয়েছে। যারা কওমি মাদ্রাসায় হামলা করে দেশে অরাজকতা সৃষ্টি করতে চায়, সরকারকে তাদের শাস্তি প্রতিবিধান করতে হবে।

 

ফাতাহ২৪.কম এর সৌজন্যে

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved ©2020 jubokantho24.com
Website maintained by Masum Billah