সোমবার, ২৬ Jul ২০২১, ০৩:৪১ পূর্বাহ্ন

ভোট চলছে শিক্ষাবোর্ডের নেতা নির্বাচনে! কান্ডারী নিয়ে যাচ্ছো কোথায়?

লাবীব আব্দুল্লাহ!
ছবিটা ভোট প্রদানের বা ভোটের লাইনের- আমার বিশ্বাস করতে কষ্ট হচ্ছে৷বেফাকের পথে সিলেটের এদারা৷
শিক্ষাবোর্ডের সভাপতি নির্বাচন হয় এবং একাধিক প্রার্থী বা লোভী বা কামনাকারী বা খাদেম ও অনুসারীদের দাবিতে সভাপতি হতে হয়, এই মনোভাব নিয়ে সভাপতিপ্রার্থী শিক্ষবোর্ডের৷ এইসব সার্কাস, নাটক দেখতে হচ্ছে এই সময়ে৷
ভোট খরিদ ফরুখত ও কেনাবেচা হবে৷ লড়াই হবে হাড্ডাহাড্ডি এক সময় হয়তো মুরব্বীর ছবিসহ নির্বাচনী প্রচারণাও হবে! বেফাকের সভাপতির নির্বাচনের সময় হালকা করে একটি আশংকা প্রকাশ করেছিলাম এইসব নির্বাচনের ভয়াবহতার কথা৷ সাহেবজাদা সংস্কৃতি কিছুটা নীরব বা থেমে আছে হাটহাজারী আন্দোলনের পর৷ সময় হলে আবার জেগে ওঠবে৷ মাঝে ওয়াজ মৌসুমের ইস্যু শেষ হলে আমাদের নতুন ইস্যু লাগতে পারে৷ গরমের মৌসুমে তো আর শীতের ওয়াজ চলবে না৷ বেফাক জেলায় জেলায় কমিটি বানায়৷ সভাপতি বানায়৷ সদস্য বানায়৷ একটি শিক্ষাবোর্ডের মূল কাজ বাদ দিয়ে কখনও জঙ্গিবিরোধী সমাবেশ, কখনও নানা ইস্যুর প্রতিবাদ করে কিন্তু তালেবে ইলমের আগামী নির্মাণ নিয়ে সুন্দর পরিকল্পনা নেই৷ নেই শিক্ষকদের অধিকার নিয়ে কথা৷ নেই মাদরাসার নেসাব ও নেজামের প্রয়োজনীয় সংস্কার, সংযোজন -বিয়োজন।
একটি পরীক্ষা ও প্রভাবহীন কাগুজে সনদের জন্য কত আয়োজন! সিলেটের এদারা বা ইদারা প্রাচীনতম শিক্ষাবোর্ড৷ আমি তাদপর নির্বাচনী হালচালের ভিডিও ও ছবি দেখে কষ্ট পেলাম৷

সভাপতি নির্বাচনে শুরাঈ নেজাম ও শারঈ মানদন্ড ও নেজাম না মেনে ভোটের পথ নেবার ছবি! এইসব শেষে কোন পথে নিয়ে যাবে কওমী ধারার দ্বীনি মাদরাসাগুলোকে৷ হাটহাজারী মাদরাসা, লালবাগ মাদরাসা এবং বারিধারা মাদরাসার মুহতামিম কে?

সেখানে নেজাম ও এন্তেজাম পরিচালনায় একাধিক মুহতামিম বা শূরা বা পরিচালনা পরিষদ! অন্যরাও এই পথ অনুসরণ করতে পারে৷ আমরা কেন একটি ব্যবস্থাপনার জন্য সুন্দর কাঠামো তৈয়ার করতে পারি না? কেন রুপ দিতে ব্যর্থ একটি দীনি প্রতিষ্ঠানকে প্রাতিষ্ঠানিক রুপ দিতে৷ এই ক্ষেত্রে সাহেবজাদাকে গদ্দীনিশিন করার প্রবণতা ছাড়াও কমিটির পূজা ও কমিটিকে ব্যবহার করে স্বার্থ হাসিল করা এবং অন্যান্য কারনও রয়েছে৷ মাদরাসাকে নিজসম্পত্তি ও ভোগের সামগ্রী মনে করলে এইসব ফিতনা হবেই৷ মাদরাসা উম্মাহর৷ মুসলিম জনতার৷ জনতার আমানত রক্ষাকারী যারা তাদের ভক্ষক হবার মানসিকতা বাদ দিতে হবে। অন্যথা সামনে আরও বিপদ৷ স্থবির হয়ে পড়বে কওমী মাদরাসার প্রশাসন৷ কওমীর নেজাম৷ নেসাব তো স্থির ও জুমুদের শিকার আগ থেকেই৷ নতুন যুগের নতুন সময়ের চাহিদা ও সময়ের স্পন্দন উপলব্ধি করতে পুরনো ধাচের মাদরাসার ধারক বাহকরা অনেকটা ব্যর্থ তবে শুকরিয়া মাহফিলে সফল! সরকারি সনদপ্রাপ্তি নিয়ে তৃপ্তির ঢেকুর৷ সরকারি সনদ নিয়ে কাহাফি নিদ্রায় বিভোর কান্ডারীরা৷ কওমীর তালেবে ইলম ও এই প্রজন্ম গভীর ইলম চর্চা, ত্যাগ ও উম্মার বৃহত্তর স্বার্থচিন্তা বাদ দিয়ে দেড় ইঞ্চি বক্তা হয়ে রাতে বিরাতে ওয়াজ মাহফিল করে টাকা উপার্জনের চিন্তায়৷ আমাদের তালেবে ইলমরা এখন বক্তা হয়ে তখত তাউসে বা হেলিকপ্টারে উড্ডীনের স্বপ্নে বিভোর৷ ব্যতিক্রম নেই তা বলা যাবে না৷ বাংলা নোট গাইড দেখে হাইআর মাস্টার্সের সনদ পরে মুফতী, আল্লামা, শাইখুল হাদীসের লকব লাগিয়ে ওয়াজ মাহফিলে বক্তা হওয়া আর তাফাক্কুহ ফিদ্দীন এক নয়৷ এইসব নীতিকথা বললে আবার কওমীবিরোধী বলে গালি দেবে আমাকে৷ দেবে নানা লকব৷ সনদও!

আমাদের মুরব্বীগন এই যামানায় ভোট, নেতা হবার পদ্ধতির যা করছেন মনে হয় তারা নিজের চিন্তায় করেন না৷ চাটুকার তৈলবাজ, খাদেম পার্টি, সাহেবজাদা ও ধান্ধাবাজদের উস্কানি বা তৈলমর্দনের শিকার৷ এইসব জঞ্জাল মুক্ত হলে দারুল উলূম দেওবন্দের পুরনো যুগের হালতে এবং দরসে নেজামীর পুরোনো ভালো দিকগুলোর দিকে এবং খেলাফতে রাশেদা থেকে দেওবন্দ পর্যন্ত দীনি ইলমের সিলসিলার দিকে ফিরে যেতে হবে৷ ফিরে যেতে হবে আকাবির ও আসলাফের সুন্দর পথে৷ সচ্ছ পথে৷ সেই পথের সাথে সময়ের ভালো দিক যোগ করতে হবে৷ এই দেশে নির্বাচনে কী হয় তা কি আমাকে স্পষ্ট করে লিখতে হবে! একটি বিড়ি খেয়েও ভোট বিক্রি হয়৷
মাদরাসার ভোটাররা বিড়ি নয় ভাড়ায় ভোট দিয়ে নির্বাচন করবে সভাপতি! এই পতি কোনো কাজে আসবে না কওমীর প্রকত উন্নয়ণে৷ কাজে আসবে না সুন্দর আগামী বিনির্মাণে৷
ভাঙনের মুখে কওমীর ঐতিহ্য৷ এই ভাঙন ঠেকাতে যথা সময়ে হতে হবে সজাগ৷ জাগ্রত৷ সচেতন৷

আমাদের অব্যবস্থাপনা দেখে অন্য শক্তি হস্তক্ষেপ করতেই পারে তখন শুধু ফেলতে হবে চোখের পানি৷ অশ্রুপাত৷
এইসব লিখে লাভ নেই তবুও লিখি৷ তবুও ডাক দিয়ে যাই৷
শিক্ষাবোর্ড হোক শিক্ষাবান্ধব৷ পরিভাষা হোক শিক্ষামূলক৷ লোকবল ও ব্যবস্থাপনা হোক সুন্দর নিয়মে৷ যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতার ভিত্তিতে৷
কওমী মাদরাসা আপন ঐতিহ্যে ফিরে আসবে এই প্রত্যাশা৷
কওমী অঙ্গন ও কওমীর ফুলবাগে ফিরে আসুক নতুন বসন্ত৷
ফুলেল হোক৷ সুরভিত হোক সেই ফুলে আঙ্গিনা৷

লাবীব আব্দুল্লাহ
ইবনে খালদুন ইনস্টিটিউট
4/3/2021

Please Share This Post in Your Social Media

Eid Mubarak
© All rights reserved ©2020 jubokantho24.com
Website maintained by Masum Billah