বৃহস্পতিবার, ১৭ Jun ২০২১, ০৩:১১ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম:
আল-হাইআতুল উলয়া বাংলাদেশের স্থায়ী কমিটির আজকের সভার সিদ্ধান্তসমূহ সন্ধান মেলেনি ছয় দিনেও আবু ত্ব-হা মুহাম্মাদের যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করে গাজায় আবারও ইসরাইলের বিমান হামলা ইসলামী বক্তা আবু ত্ব-হা ও তার সঙ্গীদের সন্ধান দাবিতে রংপুরে মানববন্ধন করোনাকলীন সময়েও হজে যেতে ২৪ ঘণ্টায় আবেদন জমা পড়েছে ৪ লাখ ইসলামী বক্তা আবু ত্ব-হা নিখোঁজের ৫দিনেও হদিস করতে পারছে না পুলিশ কারাবন্দী আলেম-উলামা ও ইসলামী নেতৃবৃন্দকে মুক্তি দিতে হবে- বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস করোনা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যায়, নাইট ক্লাবে যায় না দেশের সকল প্রাইমারী স্কুলে ধর্মীয় শিক্ষক নিয়োগের আহ্বান ‘আলেমদের নয়, সব এমপিদের সম্পদের হিসাব চাওয়া উচিত’

রোহিঙ্গা ক্যাম্পের সহস্রাধিক ঘর পুড়ে ছাই, নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিস

যুবকণ্ঠ ডেস্ক;

কক্সবাজারের উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পের আগুন অনেকটেই নিয়ন্ত্রণে এসেছে। তবে এখনো কিছু কিছু স্থানে বিচ্ছিন্নভাবে আগুন জ্বলছে। আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিসের সাতটি ইউনিট। সেই সঙ্গে কাজ করছে পুলিশ, এপিবিএন, বিজিবি ও সেনাবাহিনী।

ঘটনাস্থলে থাকা কক্সবাজারের পুলিশ সুপার (এসপি) মোহাম্মদ হাসানুজ্জামান জানান, আগুন অনেকটা নিয়ন্ত্রণে এসেছে। আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসসহ অনেকগুলো সংস্থা কাজ করছে। এখনো পর্যন্ত হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে দায়িত্ব পালন করা ৮ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ানের অধিনায়ক মো. শিহাব কায়সার খান বলেন, প্রাথমিকভাবে আগুন নিয়ন্ত্রণ ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় কাজ করছি আমরা। এই মুহূর্তে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা ছাড়া অন্য কিছু ভাবতে পারছি না।

শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশন কার্যালয়ের অতিরিক্ত কমিশনার শামসুদ্দোজা নয়ন জানান, আগুনে একটি ক্যাম্প পুরোপুরি পুড়ে গেছে। এখন পর্যন্ত চারটি ক্যাম্পে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে।

আগুনে রোহিঙ্গাদের বসতি ছাড়াও পুলিশের ব্যারাক, ফিল্ড হাসপাতাল পুড়ে গেছে। পাশাপাশি স্থানীয় ২শ পরিবারের বসতবাড়ি পুড়ে গেছে বলে জানিয়েছেন উখিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হামিদুল হক চৌধুরী। তিনি বলেন, ‘এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় রোহিঙ্গাদের পাশাপাশি স্থানীয়রাও ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।’

এদিকে কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো.রফিকুল ইসলাম জানান, আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে পার্শ্ববর্তী কয়েকটি জেলা থেকে অতিরিক্ত পুলিশ নিয়ে আসা হয়েছে।

অন্যদিকে কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশিদ জানিয়েছেন, যেসব রোহিঙ্গাদের ঘর পুড়ে গেছে তাদের অন্য ক্যাম্পে স্থানান্তর করার কাজ করছেন তারা।

প্রসঙ্গত, আজ সোমবার বিকেল ৩টার দিকে গিয়ার বালুখালী এলাকার ‘৮ ই-ডব্লিউ’ ক্যাম্প থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। পরে এই আগুন আশপাশের ৯,১০ ও ১১ নাম্বার ক্যাম্পেও ছড়িয়ে পড়ে। তবে আগুন লাগার কারণ এখনও জানা যায়নি।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved ©2020 jubokantho24.com
Website maintained by Masum Billah