বুধবার, ২১ এপ্রিল ২০২১, ১১:২৭ অপরাহ্ন

শিরোনাম:
রাজশাহীতে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুরের বিরুদ্ধে মামলা করলেন যুবলীগ নেতা হেফাজতের আরও দুই শীর্ষস্থানীয় নেতা গ্রেপ্তার মাছ ছিনতাই : থানায় অভিযোগ ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে ২০১৩ সালের ৫ মে শাপলা ট্রাজেডির মামলায় আল্লামা খুরশেদ আলম কাসেমি গ্রেফতার! ২০১৩ সালের ৫ ই মের মামলায় মুফতি সাখাওয়াত ও মাওলানা আফেন্দির ২১ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর মাওলানা আফেন্দি ও মুফতি সাখাওয়াত হোসেন রাজিকে ১০ দিনের রিমান্ড! মাওলানা আফেন্দি ও মুফতি সাখাওয়াত হোসেন রাজিকে ১০ দিনের রিমান্ড! আট বছর আগের মামলায় ৭ দিনের রিমান্ডে হেফাজত নেতা কোরবান আলী আরো এক মামলায় মাওলানা রফিকুল ইসলামের একদিনের রিমান্ডে লকডাউনকে ‘বৃদ্ধাঙ্গুলি’ দেখিয়ে অষ্টমীর স্নানে মানুষের ঢল

রোহিঙ্গাদের মানব পাচারের শিকার হওয়া থেকে রক্ষা করতে আহ্বান জাতিসংঘ

ডেস্ক নিউজ- রোহিঙ্গাদের মানব পাচারের শিকার হওয়া থেকে রক্ষা করতে জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন। নিউইয়র্ক থেকে ঢাকায় প্রাপ্ত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আজ বৃহস্পতিবার এ খবর জানানো হয়।
রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন বলেন, জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের মানব পাচারের সম্ভাব্য শিকার হওয়া থেকে রক্ষা করতে হলে মিয়ানমার সংকটের স্থায়ী সমাধান করতে হবে। মঙ্গলবার জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে ‘সংঘাতময় পরিস্থিতিতে মানব পাচার’ বিষয়ক এক উন্মুক্ত মিনিস্টিরিয়াল বিতর্কে বক্তৃতাকালে রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন একথা বলেন।
রাষ্ট্রদূত মাসুদ ‘সংঘাতময় পরিস্থিতিতে মানব পাচার’ -এর বিরুদ্ধে জাতিসংঘের সম্বিত উদ্যোগকে আরও শক্তিশালী করতে সকল সদস্যরাষ্ট্রের সাথে একযোগে কাজ করার প্রতিশ্রুতি পূনর্ব্যক্ত করেন।
রোহিঙ্গাদের মর্মভেদী নির্যাতনের কাহিনী, হত্যা ও শোষণ, ডিঙ্গি নৌকায় ভেসে সমুদ্র পাড়ি দিতে গিয়ে শত শত প্রাণহানির ঘটনাসহ ভয়াবহ মানবিক পরিস্থিতির কথা উল্লেখ করে রাষ্ট্রদূত মাসুদ বলেন, ‘এসকল ঘটনা মানবপাচারকারী ও সংঘবদ্ধ অপরাধ চক্রগুলোর অপরাধ সংঘটনের ক্ষেত্রকে অবারিত করেছে’।
রাখাইন প্রদেশ থেকে পালিয়ে আসা বিপুল সংখ্যক নারী ও শিশুর মধ্যে অনেকেই চোরাকারবারি ও মানবপাচারকারীদের সম্ভাব্য শিকারে পরিণত হতে পারে বলে তিনি উদ্বেগ প্রকাশ করেন।
মানবপাচারকারী ও সংঘবদ্ধ অপরাধ চক্রগুলোর প্রতি তীক্ষ্ণ নজরদারী বজায় রাখতে বাংলাদেশের সীমান্ত ও আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী অতিরিক্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে বলে রাষ্ট্রদূত উল্লেখ করেন।
জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেজ, ইউএন অফিস অন ড্রাগস এন্ড ক্রাইম এর এক্সিকিউটিভ ডাইরেক্টর ইউরি ফেডোটভ, জাতিসংঘের মানব পাচার বিষয়ক বিশেষ র‌্যাপোর্টিয়ার মিস মারিয়া গ্রাজিয়া জিয়ামমারিনারো এবং আফ্রিকান ইউনিয়নের শান্তি ও নিরাপত্তা বিষয়ক কমিশনার ইসমাইল চেরগুই এসভায় বক্তৃতা করেন। তারা সকলে ‘সংঘাতময় পরিস্থিতিতে মানব পাচার’ বিষয়টিকে এ সময়ের সবচেয়ে বড় মানবাধিকার সঙ্কট বলে উল্লেখ করেন। বাসস

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved ©2020 jubokantho24.com
Website maintained by Masum Billah