সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:২৩ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম:
সুস্থ ও ভালো থাকার দোয়া নামাজে অনিহা কাটানোর সহজ কিছু উপায় রাস্তা ও ভবন নির্মাণে মানসম্পন্ন ইট তৈরি ও সরবরাহের নির্দেশ স্থানীয় সরকার মন্ত্রীর মিথ্যে চুরির অভিযোগ এনে মাদ্রাসাছাত্রকে খুঁটির সঙ্গে বেঁধে নির্যাতন বঙ্গবন্ধুর সংবিধান অনুযায়ী জাতীয় সংসদ নির্বাচন হবে: তথ্য প্রতিমন্ত্রী সিলেটের সিংহ পুরুষ খ্যাত প্রিন্সিপাল হাবিবুর রহমান রহ. এর ছেলে মাওলানা তায়েফ বিন হাবীব আর নেই নির্বাচনকালীন সময়ে আওয়ামী সরকারই তত্ত্বাবধায়ক সরকার: তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুফতি তাকি উসমানি পাকিস্তান বেফাকের সভাপতি নির্বাচিত সঙ্গীতশিল্পী ও ইসলামী আলোচক মাওলানা আবুল কালাম আজাদ বাইক এক্সিডেন্টে আহত নেজামে ইসলাম পার্টির জেলা সভাপতি যোগ দিলেন ইসলামী আন্দোলনে

সেনজেন ভিসা তৈরির প্রতারক চক্রে গ্রেফতার

নিউজ ডেস্ক 

সারাদেশ ২৪ ডট কম 

মাত্র পাঁচ মিনিটে পাসপোর্টে ইউরোপের সেনজেন ভিসা লাগিয়ে দেওয়ার কাজ করত উত্তরার একটি সঙ্ঘবদ্ধ চক্র । ভিসা পক্রিয়া সম্পন্ন করার জন্যে পার্থীদের কাছ থেকেই আগেই সংগ্রহ করে নিতো সকলের প্রয়োজনীইয় কাগজ পত্র। এভাবেই বিশ্বাস অর্জন করে নিয়েছিল চক্রটি। কাঙ্ক্ষিত সেনজেন ভিসার জন্যে তারা হাতিয়ে নিয়েছে লক্ষ লক্ষ টাকা ।
সেনজেন ভিসা প্রাপ্তির এই খবরে বেশ বিস্মিত হইয়েছিল ঢাকা মহানগর ( উত্তর) গোয়েন্দা বিভাগের কর্মকর্তারা । গত সোমবার দিবাগত রাতে এই চক্রের কর্মকান্ডে হানা দেয় ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের উত্তর বিভাগের একটি দল। সহকারী কমিশনার মো. কায়সার রিজভী কোরায়েশীর নেতৃত্বে একটি দল ভিসা বানানোর গুরুত্বপূর্ণ সরঞ্জামসহ রাজধানীর উত্তরা এলাকা থেকে গ্রেফতার করেছে এই চক্রের চার সদস্যকে। গ্রেফতার ব্যক্তিরা হলেন জিয়াউল হক ওরফে জুয়েল, মো. জাকারিয়া মাহামুদ, মো. মাহবুবুর রহমান ও মো. মামুন হোসেন। এই চক্রের সঙ্গে প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের কিছু দুর্নীতিগ্রস্ত কর্মচারী জড়িত। এরা প্রতিটি পাসপোর্টের বিপরীতে ২২ হাজার ৫০০ টাকা দিয়ে ম্যানপাওয়ার ও নিরাপত্তা কার্ড দিয়ে দিতেন। সাধারণ মানুষকে এই আসল কার্ডসহ পাসপোর্ট দিয়ে চক্রের সদস্যরা নির্দিষ্ট পরিমাণ ইউরো এনডোর্স করিয়ে নিত। গ্রেফতার ব্যক্তিদের মধ্যে মামুন নিখুঁতভাবে ভিসা বানানোর কাজটি করে। জাকারিয়া ও জুয়েল ক্লায়েন্ট ধরে আনে এবং মাহবুব কনসালটেন্সি করে।

গতকাল দুপুরে রাজধানীর মিন্টো রোডে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলন করে ঢাকা মহানগর পুলিশের যুগ্ম কমিশনার (ডিবি) আবদুল বাতেন বলেন, ইউরোপের সেনজেন ভিসা দেওয়া হবে বলে বিজ্ঞাপন দেওয়া হতো। ওই ভিসা করার জন্য দফায় দফায় প্রয়োজনীয় কাগজ নেওয়া হতো গ্রাহকের কাছ থেকে। ভিসা দেওয়ার পর গ্রাহকের কাছ থেকে ভিসার জন্য নেওয়া হতো মোটা অঙ্কের টাকা। ভিসা দিয়ে ভ্রমণের দিন ও ফ্লাইট নম্বর জানানো হতো। কিন্তু যখন ভ্রমণের তারিখ আসত, তখন তাকে ফোন করে বলা হতো, তার ভ্রমণের তারিখ বদলেছে। এভাবেই তারিখ বদলের মাধ্যমে প্রতারণা করতো চক্রটি ।

অভিযান চলাকালীন গ্রেফতার ব্যক্তিদের কাছ থেকে ১৪টি জাল সেনজেন ভিসাযুক্ত বাংলাদেশি পাসপোর্ট, ব্যাংকের জাল হিসাব বিবরণী এবং ভিসা প্রস্তুতের বিপুল পরিমাণ স্টিকার পেপার, সাইপ্রাসে পাঠানোর জন্য জাল আমন্ত্রণপত্র, ব্যাংক গ্যারান্টি, জাল নথি প্রস্তুতের জন্য কম্পিউটার, মনিটর, স্ক্যানার ও প্রিন্টারসহ অন্যান্য সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয় ।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved ©2020 jubokantho24.com
Website maintained by Masum Billah