শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:২৭ পূর্বাহ্ন

র‍্যাব মহাপরিচালক খাদ্যে ভেজালকারীদের ফাঁসী চাইলেন

নিজেস্ব প্রতিনিধি – খাদ্যে ভেজাল নিয়ে র‍্যাব মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ সরকারের আইন কর্তাদের দৃষ্টিয়াকর্ষণ করেছেন । যারা খাদ্যে ভেজাল মেশায় তাদেরকে তিনি ‘খুনি’ আখ্যা দি্যে বলেছেন ,এদের ফাঁসি দিতে হবে। এ জন্য আইনের সংস্কারও চেয়েছেন তিনি।
প্রথম রোজার দিনে ,র‍্যাবের‘পরিমিত ক্রয় ক্যাম্পেইন’নামক জনসচেতনামূলক এক অনুষ্ঠানে মঙ্গলবার রাজধানীর কাওরান বাজারে এমন আয়োজন হয় । যেখানে র‍্যাব মহাপরিচালক উল্লেখ্য বক্তব্য প্রদান করেন । রমজানে প্রতিবার খাদ্যপণ্যের চাহিদা থাকে বেশি। আর মাসের শুরুতেই সারা মাসের কেনাকাটা সেরে রাখতে চান বহুজন। এতে বাজারে চাপ পড়ায় পণ্যমূল্যও বেড়ে যায় প্রতি বছর। আর এভাবে না কিনে সারা মাস অল্প অল্প করে কেনাকাটা করার আহ্বান জানানো হয় অনুষ্ঠানে। এখানে একটি ছোট পরিবার দুই দিন চালাতে পারবে- এমন পরিমাণে একটি থলে তৈরি করে বিক্রি করা হয়। এতে এক কেজি শশা, ৫০০ গ্রাম বেগুন, এক হালি লেবু, এক কেজি পেঁয়াজ, ৩০০ গ্রাম কাঁচা মরিচ, ৫০০ গ্রাম টমেটো, এক কেজি আলু এবং আধা কেজি গাজর ছিল।
এই মাসে পণ্য মূল্যের পাশাপাশি খাদ্যে ভেজালের বিষয়টি নিয়েও বেশ উদ্বেগে থাকে ভোক্তারা। র‌্যাব প্রধান বলেন, ‘কিছু অসৎ ব্যবসায়ীর জন্য বাজারে মূল্য বাড়ছে। এই অংশকে আমরা সার্জারি করে আলাদা করে দেব। এদেরকে অপারেশন করে ডাস্টবিনে ফেলে দেওয়া হবে। দরকার নেই এই অংশের। যারা ভেজাল করে তারা খুনি।
‘খুন করলে যদি ফাঁসি হয়, যে খাদ্যে ভেজাল মেশায় তারও ফাঁসি হতে হবে।’
এই অপরাধে সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করতে নিরাপদ খাদ্য আইন-২০১৩ সংশোধন করারও দাবি জানান বেনজীর। এ জন্য অনুষ্ঠানে উপস্থিত স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামালের দৃষ্টিও আকর্ষণ করেন তিনি। বলেন, ‘যাতে দেশের মাটিতে কেউ খাদ্যে ভেজালের মতো দুসাহস না দেখাতে পারে।’
মাত্রাতিরিক্ত মুনাফা করার প্রবণতা ছাড়তে ব্যবসায়ীদের প্রতি আহ্বানও জানান র‌্যাব মহাপরিচালক। বলেন, ‘রমজান আসলে পণ্যের দাম বাড়বে এই সংস্কৃতি থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। এখন থেকে রমজান আসবে পণ্য মূল্য কমবে। সেটা এক টাকা হলেও কমবে। ব্যবসায়ীরা এখন অনেক সু-সংগঠিত। বর্তমান সরকার ব্যবসাবান্ধব সরকার। এই সরকারের আমলে যদি বাজার নিয়ন্ত্রণ না হয় তাহলে কবে হবে?’
‘আসেন আমরা আজ থেকে শুরু করি। কেউ কারও বিরুদ্ধে অভিযোগ দিব না। খুচরা বিক্রেতা দোষ দেয় পাইকারি বিক্রেতাকে, পাইকারি বিক্রেতা বলবে সরবরাহকারী বাড়িয়েছে। কোথাও অন্যায্যভাবে উদেশ্যপ্রণোদিত ভাবে দাম বাড়ালে আমাদের বলবেন।’
র‍্যাব মহাপরিচালকের এমন দাবী সাধারণ মানুষেরো । উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ক্ষুব্দ নাগরিক সৈয়দ আলফাজ নামের জনৈক ক্রেতা অভিমত পোষণ করেন , তার পরিবারে প্রায় ৪ জন পেটের নানান রোগে আক্রান্ত । সে ছোট চাকুরী করে্ন কিন্তু মাসে তাকে অনেক টাকার ঔষধ কিনতে হয় । তিনি ধারণা করেন তার পরিবারে এই রোগের কারণ খাদ্য গ্রহনে অসাবধানতা ।
র‍্যাবের এই ব্যক্তক্রমী এই আয়োজন বেশ সাড়া ফেলেছে ক্রেতাদের মাঝে । গত ৩০/৩৫ বছর যাবত দেশে খাদ্যে ভেজাল বেড়েছে কয়েকগুণ । চাইলেই কেউ বিষমুক্ত খাদ্য গ্রহন করতে পারেন না । অসাধু একটি চক্র ক্রমাগত মালামাল দীর্ঘ সময় পচন এবং অসময়ের মালামাল করে অতিরিক্ত মুনাফার আশায় দেশের প্রায় সকল মানুষকে লিভার,কিডনী,ফুসফুস ও অন্যান্য রোগের জীবাণু বিস্তারে হত্যা করছে ।
ছবি – নেট

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved ©2020 jubokantho24.com
Website maintained by Masum Billah