রবিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০৩:৩৫ অপরাহ্ন

শেরপুরের পিএসসি পরীক্ষার্থীকে ধর্ষণ করল রিক্সাচালক

সারাদেশ প্রতিবেদক ॥

শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে পিএসসি পরীক্ষা শেষে বাড়ি ফিরিয়ে না এনে বেড়ানোর কথা বলে পাহাড়ে নিয়ে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের এক কিশোরীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেছে তারই প্রতিবেশি ও নিয়মিত আনা-নেয়ার কাজে নিয়োজিত চার্জার রিক্সাচালক দুই সন্তানের জনক হাবিবুল্লাহ।

২৪ নভেম্বর রবিবার বিকেলে ধর্ষণের এ ঘটনার পর আজ সোমবার ভিকটিমকে শেরপুর ওয়ান স্টাপ ক্রাইসি সেন্টারে পাঠানো হয়েছে। পুলিশ আসামী ধরতে তৎপরতা চালাচ্ছে।ভিকটিমের মা জানান, উপজেলার শিমুলতলা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী তার কন্যাকে সদ্য অনুষ্ঠিত প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা কেন্দ্রে পরীক্ষা চলা পর্যন্ত আনা-নেয়ার জন্য প্রতিবেশি চার্জার রিক্সাচালক দুই সন্তানের জনক হাবিবুল্লাহকে চুক্তি দেওয়া হয়। চুক্তি অনুযায়ী হাবিবুল্লাহ প্রতিদিন তার কন্যাকে বাঘবেড় পরীক্ষা কেন্দ্রে আনা-নেওয়ার কাজ করে। গতকাল রবিবার ছিল শেষ পরীক্ষা। পরীক্ষা শেষ হলে রিক্সাচালক হাবিবুল্লাহ তার কন্যাকে পাহাড় দেখানোর কথা বলে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যায়। পরে জোর করে মুখ চেপে ধরে ধর্ষণ করে ও কাউকে না বলার জন্য ভয়-ভীতি দেখায়। বাড়ি ফিরে ওই কিশোরী অস্বাভাবিক আচরণ করায় সন্দেহ হয়। পরে কারণ জানতে চাইলে সন্ধ্যায় সে সব খোলে বলে।পরে আজ (সোমবার) সকালে ভোক্তভোগী কিশোরীকে চিকিৎসার নালিতাবাড়ী হাসপাতালে আনা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে শেরপুর ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে প্রেরণ করেন।

এদিকে ঘটনা শোনে অভিযুক্তকে ধরতে সকালেই মাঠে বেড়িয়ে পড়ে নালিতাবাড়ী থানা প্রশাসন। ফলে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মামলা দায়েরর প্রস্তুতি চলছিল। ঘটনা শোনে হাসপাতালে ছুটে যান সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট লুবনা শারমীন।কর্তব্যরত চিকিৎসক হানিফ আহমেদ তৌফিক জানান, আমরা প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে হাইকোর্টের নির্দেশনা অনুযায়ী শেরপুর ওয়ান স্টা ক্রাইসিস সেন্টারে প্রেরণ করেছি। যেখানে ভিকটিমের চিকিৎসাসহ যাবতীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হবে।বিষয়টি নিশ্চিত করে থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বছির আহমেদ বাদল জানান, অভিযুক্তকে ধরতে অভিযান চালানো হচ্ছে।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved ©2020 jubokantho24.com
Website maintained by Masum Billah