বৃহস্পতিবার, ২৮ অক্টোবর ২০২১, ০৫:৫৭ অপরাহ্ন

শিরোনাম:
বন্ধ করে দেয়া হলো খার্তুম আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর পাকিস্তানে বিদ্রোহীদের সাথে সংঘর্ষে ৪ পুলিশ সদস্য নিহত কথিত প্রগতিশীলদের বাধা: যুক্তরাজ্যের প্রোগ্রামে যেতে পারেননি মাওলানা আজহারী কবরে থেকেও মামলার আসামি হাফেজ্জী হুজুরের নাতি নরসিংদীতে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ৩০ আমেরিকাসহ পশ্চিমা দেশগুলোর কূটনীতিকদের সঙ্গে আফগান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠক প্রথমবারের মতো ক্যামেরার সামনে আসলেন মোল্লা ইয়াকুব আজ বন্ধ হতে পারে অনেকের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট এখন শেখ হাসিনার অলৌকিক উন্নয়নের গল্প শোনানো হচ্ছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী পাবজি খেলতে দেয়ার প্রলোভনে শিশুদের বলাৎকার করতেন স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা

মহাগুরুত্বপূর্ণ ফাইনাল ম্যাচে বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ

ডেস্ক নিউজ ॥

নিজেদের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় ম্যাচ থেকে আর মাত্র ঘণ্টাদুয়েক দূরে রয়েছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট দল। বাংলাদেশ সময় দুপুর ২টায় ভারতের বিপক্ষে বিশ্বকাপের ফাইনাল ম্যাচে মাঠে নামবে টাইগার যুবারা। এ ম্যাচের আগে ফুরফুরে মেজাজেই রয়েছে বাংলাদেশ।

ভিন্ন ভিন্ন সাক্ষাৎকারে একই কথা উচ্চারিত হয়েছে যুব দলের ক্রিকেটারদের মুখে। দলের অধিনায়ক আকবর আলি, টপঅর্ডার ব্যাটসম্যান মাহমুদুল হাসান জয়, ওপেনার প্রান্তিক নওরোজ নাবিল কিংবা ফাস্ট বোলার তানজিম হাসান সাকিব- সবাই বলেছেন ফাইনাল ম্যাচটিকে অন্য সব স্বাভাবিক ম্যাচের মতোই খেলতে চান তারা।

তবে দলের খেলোয়াড়রা যতোই বলুক না কেন, ফাইনাল ম্যাচের জন্য বাড়তি কোনো চাপ নেই বা বিশেষ কোনো ভাবনা নেই তাদের- বাস্তব সত্য হলো, মহাগুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে জয়ের বাড়তি পরিকল্পনা হাতে রাখতেই হয় যেকোনো দলকে। এর বিপরীত নয় বাংলাদেশও।

বিশেষ করে প্রতিপক্ষ দল যখন ভারত, যারা জিতেছে টুর্নামেন্ট সবশেষ আসরের শিরোপা, যাদের রয়েছে যুব বিশ্বকাপের ইতিহাসে সর্বোচ্চ চারটি শিরোপা জয়ের রেকর্ড, যারা কি না যুব বিশ্বকাপে সবশেষ ১১ ম্যাচে হারেনি একটিতেও- তাদের বিপক্ষে নিজেদের পরিকল্পনা অন্য যেকোনো ম্যাচের শক্তিশালীই হতে হবে বাংলাদেশের।

এক্ষেত্রে টাইগার যুবাদের একটি সুবিধা রয়েছে। আগেই ইনজুরির কারণে ছিটকে যাওয়া পেস বোলিং অলরাউন্ডার মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী নিপুণ ব্যতীত আর কোনো চোটের সমস্যা নেই দলে। তাই স্কোয়াডে থাকা খেলোয়াড়দের মধ্য থেকে সেরা দলটাই সাজাতে পারবেন কোচ নাভিদ নেওয়াজ।

কোয়ার্টার ফাইনাল ও সেমিফাইনালে স্পিনের ওপর অনেকাংশে নির্ভরশীল ছিলো বাংলাদেশ। প্রতিপক্ষ দুই দল নিউজিল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকার স্পিনের প্রতি দুর্বলতা মাথায় রেখেই একাদশ ছিলো তেমন। কিন্তু উপমহাদেশের দল হওয়ায় স্বাভাবিকভাবে ভারতীয়রা স্পিনের বিপক্ষে সাবলীল।

এ কথা মাথায় রেখে বাংলাদেশ দলের ফাইনাল ম্যাচের একাদশে পরিবর্তন আসতে পারে একটি। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সেমিফাইনাল ম্যাচে খেলা বাঁহাতি স্পিনার হাসান মুরাদের পরিবর্তে দলে নেয়া হতে পেস বোলিং অলরাউন্ডার শাহীন আলমকে। একাদশ বাকি ১০ জন অপরিপর্তিত থাকার সম্ভাবনাই বেশি। অন্যদিকে ভারতীয় দল তাদের সেমিফাইনালের একাদশ নিয়েই মাঠে নামতে পারে।

বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ: পারভেজ হোসেন ইমন, তানজিদ হাসান তামিম, মাহমুদুল হাসান জয়, তৌহিদ হৃদয়, শাহাদাত হোসেন, আকবর আলি (অধিনায়ক ও উইকেটরক্ষক), রাকিবুল হাসান, শরীফুল ইসলাম, তানজিম হাসান সাকিব ও হাসান মুরাদ/শাহীন আলম।

ভারতের সম্ভাব্য একাদশ: যশস্বি জাসওয়াল, দিব্বংশ সাক্সেনা, তিলক ভার্মা, ধ্রুব জুয়েল (উইকেটরক্ষক), প্রিয়াম গার্গ (অধিনায়ক), সিদ্ধেশ বীর, অথর্ব আঙ্কোলেকার, রবি বিষ্ণু, সুশান্ত মিশ্র, কার্তিক ত্যাগী এবং আকাশ সিং।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved ©2020 jubokantho24.com
Website maintained by Masum Billah