বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ০৯:১৪ অপরাহ্ন

শিরোনামঃ
হেফাজতের মিছিলে কালিমা সংবলিত কালো ব্যানার: নাস্তিক্যবাদী মিডিয়ার চুলকানি মুসলিমদের হত্যার হুমকি দিয়ে ফরাসি মসজিদে ইসলামবিদ্বেষীদের চিঠি মাওলানা জুনায়েদ বাবুনগরী নাজিরহাট মাদ্রাসার মোতাওয়াল্লি নির্বাচিত ফ্রান্সের পণ্য বর্জন ও কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করতে হবে -আল্লামা মাহফুজুল হক সিএমএইচে এমপি আবু জাহির বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস যুক্তরাজ্য শাখার ভার্চুয়াল নির্বাহী সভা অনুষ্ঠিত.. অবশেষে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে নিন্দা জানিয়েছে সৌদি আরব ইসলামী আন্দোলনের দূতাবাস ঘেরাও কর্মসূচিতে পুলিশের বাধা বিশ্বজুড়ে পণ্য বর্জনের ডাকে প্রবল ঝুঁকিতে ফ্রান্সের অর্থনীতি বয়কট ফ্রান্স আন্দোলন: রেচেপ তায়েপ এর্দোয়ান ফরাসী পণ্য বর্জনের ডাক দিলেন

করোনার মধ্যে আবার বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি

আর, কে রবিউল খান– 

কয়েকদিনের অবিরাম বর্ষণ আর উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢলের কারণে দেশের বিভিন্ন জেলায় দেখা দিয়েছে বন্যা। এসব জেলাগুলোর মধ্যে কুড়িগ্রাম, গাইবান্ধা, সিরাজগঞ্জ, নেত্রকোনা, সুনামগঞ্জ, সিলেট এবং নীলফামারীতে বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি হয়েছে। এদিকে কুড়িগ্রামে বন্যা পরিস্থিতি আরও অবনতি হওয়ায় দুই লক্ষাধিক মানুষ পানিবন্দী হয়ে পড়েছে এবং ৩ হাজার ৬ হেক্টর জমির ফসল পানিতে নিমজ্জিত হয়ে পড়েছে। অন্যদিকে গাইবান্ধায় বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি হওয়ায় ৪টি উপজেলার ১৯টি ইউনিয়নের প্রায় ২০ হাজার মানুষ এখন পানিবন্দী অবস্থায় রয়েছে। এছাড়া নেত্রকোনার কলমাকান্দায় পাহাড়ী ঢল ও বৃষ্টির পানিতে শতাধিক গ্রাম প্লাবিত হয়ে পড়েছে এবং সুনামগঞ্জে নদী তীরবর্তী এলাকা ও নিম্নাঞ্চলের ২শ’ গ্রাম প্লাবিত হয়েছে।

পানিবন্দী মানুষের মাঝে শুকনো খাবার ও বিশুদ্ধ পানির সঙ্কট দেখা দিয়েছে। সদরের যাত্রাপুর ইউনিয়নের ভগবতীপুর চরের বাসিন্দা জামান জানান, চরের সবগুলো বাড়িতে পানি ঢুকে পড়েছে। আমি আমার পরিবারের লোকজন নিয়ে পানিবন্দী অবস্থায় খুব কষ্টে দিন যাপন করছি। রাস্তা-ঘাট সব তলিয়ে গেছে।

এদিকে গাইবান্ধা জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ে জানানো হয়েছে ৪টি উপজেলার ১৩টি ইউনিয়ন বন্যা কবলিত হয়ে পড়েছে।

এই পোষ্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন।

Design & developed by Masum Billah