শনিবার, ৩১ অক্টোবর ২০২০, ০৯:৩৫ পূর্বাহ্ন

শিরোনামঃ
ফ্রান্স : অসভ্যতার পৃষ্ঠপোষক আজকের বিক্ষোভ : কিছু পর্যবেক্ষণ সৈয়দ শামছুল হুদা অপরাধীর কাছে গিয়ে নরম সুরে বুঝাতে হব, সন্ত্রাসী প্রদ্ধতিতে প্রতিবাদ নয় : ফরীদুদ্দীন মাসউদ ফ্রান্স সারাবিশ্বের সামনে প্রকাশিত ক্ষমা চাইতে হবে না হয় জিহাদ ঘোষনা করলাম। মাওলানা আনিসুল হক। নিউইয়র্কে সংবর্ধিত হলেন হাফেজ কারী নাজমুল হাসান ফ্রান্সের দূতাবাস বন্ধ ও কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করতে হবে-আল্লামা নূর হোছাইন কাসেমী হেফাজতের বিক্ষোভ সমাবেশ সফল করায় দেশবাসীর প্রতি আল্লামা বাবুনগরীর অভিনন্দন ভারতের ম্যাপ থেকে কাশ্মীর বাদ দিল সৌদি আরব ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোকে মুসলিম বিশ্বের কাছে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে হবে -জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ বিক্ষোভে উত্তাল ঢাকা: ফ্রান্সের সঙ্গে সব সম্পর্ক ছিন্নের দাবি

বর্তমান সময় ও আমাদের মন মানসিকতা কোথায়

মন ও চেতনা এক নয়। যদিও চেতনা হল মনের স্বরুপ লক্ষণ মন ও চেতনা এক নয়। যদিও চেতনা হল মনের স্বরুপ লক্ষণ

রবিউল আউয়াল–  একটা সময় ছিল যখন মানুষ জিন, হিংস্র প্রাণী ইত্যাদিকে অস্বাভাবিক ভয় পেত। তাই নির্জন পথে বা অন্ধকারে কোনো মানুষের উপস্থিতির আভাস পেলে নিরাপত্তাবোধ করতো, সাহস ও সান্ত্বনা পেত।

মন নিয়ে বলতে গেলে-

মন দর্শনশাস্ত্রের একটি অন্যতম কেন্দ্রীয় ধারণা। মন বলতে সাধারণভাবে বোঝায় যে, বুদ্ধি এবং বিবেকবোধের এক সমষ্টিগত রূপ যা চিন্তাঅনুভূতিআবেগইচ্ছা এবং কল্পনার মাধ্যমে প্রকাশিত হয়। মন কি এবং কিভাবে কাজ করে সে সম্পর্কে অনেক রকম তত্ত্ব প্রচলিত আছে।

মন চেতনা-

মন ও চেতনা এক নয়। যদিও চেতনা হল মনের স্বরুপ লক্ষণ ।

 

কিন্তু, বর্তমান সময়ের একটি আলোচিত ঘটনার ভয়াবহতায় সবাই নির্বাক।

সব ব্যথিত হৃদয়ে একই প্রশ্ন- আমাদের মানবিক মূল্যবোধগুলো কোথায় হারিয়ে গেল?

কীভাবে আমাদের সমাজ এমন দুঃখজনকভাবে পাল্টে গেল?

যখন আমাদের সমাজে এত শিক্ষিত ছিল না। ছিল না এত প্রযুক্তি ও আইন-আদালত। একাডেমিক শিক্ষার আভাব ছিল, কিন্তু মানুষ অসভ্য ও বর্বর ছিল না।

শুধু দূর অতীত নয়, নিকট অতীতের দিকে তাকালেও আমাদের সামাজিক অধপতনের ভয়াবহতার হিসাব স্পষ্ট হয়ে যাবে। স্পষ্ট হয়ে যাবে পরিবর্তনের কারণটাও , শুধু দূর অতীত নয়, নিকট অতীতের দিকে তাকালেও আমাদের সামাজিক অধপতনের ভয়াবহতার হিসাব স্পষ্ট হয়ে যাবে। স্পষ্ট হয়ে যাবে পরিবর্তনের কারণটাও –

আমাদের জানা ইতিহাসের জঘন্যতম অধ্যায় হল জাহেলী যুগ। যে যুগের চিত্র তুলে ধরতে গিয়ে আমরা বারবার থেমে যাই। ভাষা আমাদের ভাব প্রকাশ করতে অক্ষমতা প্রকাশ করে। কিন্তু ইসলামের পরশে মাত্র তেইশ বছরের ব্যবধানে সেই মানুষগুলোই পরিণত হলেন ইতিহাসের সোনার মানুষে। সেই যুগ পরিণত হল মানবেতিহাসের সোনালী অধ্যায়ে। ইসলাম কত বিস্ময়কর পরিবর্তন এনেছিল সেই সমাজে ।

এটা সেসব মানুষ ও মানচিত্রের ঘটনা, যেসব মানুষ ও মানচিত্রকে অপরাধ-প্রবণতা ও বিশৃংখলার কারণে কোনো শাসক তার অধীনে আনতে পারেনি। অথচ সেই মানুষগুলোই পরবর্তী সময়ে সারা বিশ্বকে শৃংখলা শিখিয়েছে। নিজেদের অধীনে নিয়ে এসেছে অর্ধ পৃথিবী। সুতরাং যাবতীয় বিপর্যয় ও অবক্ষয় থেকে উত্তরণের জন্য আমাদেরকে ইসলামের দিকেই ফিরে আসতে হবে। ইসলাম আমাদেরকে শান্তিময় জীবন ও সোনালী ইতিহাস উপহার দিয়েছিল। ইসলাম ছাড়া আমাদের মুক্তির কোনো পথ নেই।

 যে সমাজ এতটা পিছনে, এত বুদ্ধিমত্তার সঙ্গে ফিরে দেখতে পারে, সে ততটাই সামনে নিজের ভবিষ্যতও দেখতে সক্ষম। ধর্ম, দর্শন ও নীতিশাস্ত্র সবসময় কাজ করেছে মানুষের মানসিকতা নিয়ে। মানুষ যাতে সত্য-সুন্দর ও পবিত্রের চিন্তা করে। তার মানসিকতা যেন সমস্ত প্রাণীকূল ও প্রকৃতির জন্য ইতিবাচক হয় সেই চেষ্টা চলেছে শতাব্দীর পর শতাব্দী। মনীষী এসেছেন, জ্ঞানী-গুণী-দার্শনিক এসেছেন- সকলেই ঘুরে-ফিরে প্রচার করেছেন শান্তির কথা, কল্যাণ ও সম্প্রীতির কথা। এসবই মানুষের ভালো মানসিকতার বিকাশের জন্য এবং খারাপ মানসিকতা দূর করার জন্য।

 

এই পোষ্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন।

Design & developed by Masum Billah