মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ০৮:৩৪ অপরাহ্ন

মুক্তাগাছায় রাইস মিল ও আড়তে এসিল্যান্ড মাসুদ রানার অভিযান, কয়েক ব্যাবসায়ীকে জেল-জরিমানা

যুবকন্ঠ ডেস্ক: 

এ সময় রাহাত অটো রাইস মিলে চালের মজুদ পাওয়া যায় ৩২০ টনের অধিক। এত বিপুল পরিমাণ চাল ১৫ দিন যাবৎ রাইস মিল কর্তৃপক্ষ বিক্রি না করে মজুদ করে খাবার চাওলের কৃত্রিম সংকট তৈরি করেছেন।

অত্যাবশকীয় পণ্য নিয়ন্ত্রণ আইন ১৯৫৬ এর ৩ ধারা অনুযায়ী ইহা শাস্তিযোগ্য অপরাধ। এ অপরাধে রাহাত অটো রাইস মিলকে ৬০০০০(ষাট হাজার) টাকা জরিমানা অনাদায়ে ১ মাস কারাদণ্ড ঘোষণা করা হয় ভ্রাম্যমান আদালতে। জরিমানা পরিশোধিত হয়েছে । রাইস মিল কর্তৃপক্ষকে চাল বাজারে বিক্রি করার জন্য নির্দেশ দেয়া হয়।

একই সাথে মুক্তাগাছা শহরের আটানি বাজার এলাকায় আরও আদালত পরিচালনা করা হয়।এসময় আটানি বাজার সোনালী ট্রেডার্স ৩০০০ টাকা, আব্দুল মালেকের চালের আড়ত ১০০০০ টাকা, অন্য একটি চালের আড়তে ৩০০০ টাকা অত্যাবশকীয় পণ্য নিয়ন্ত্রণ আইন ১৯৫৬ অনুযায়ী মোট ৫ টি মামলায় ৭৬২০০ টাকা জরিমানা করা হয় ভ্রাম্যমান আদালতে।

চালের মজুদ করে বাজারে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করে চালের দাম বাড়ানো যাবে না, যদি তা করা হয় তাহলে তা হবে শাস্তিযোগ্য অপরাধ। সরকার নির্ধারিত বি আর ২৮/ ২৯ সর্বোচ্চ ২২৫০ টাকায় ৫০ কেজির চালের বস্তা বিক্রি করা যাবে। এর বেশি হলে তা হবে শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

মাসুদ রানা বলেন মোবাইল কোর্ট পরিচালনা অব্যহত থাকবে। প্রসিকিউটর উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক, মুক্তাগাছা ও মুক্তাগাছা থানা পুলিশ ও আদালতকে সহায়তা করেন।

এই পোষ্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন।

Design & developed by Masum Billah