মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ০৩:০২ পূর্বাহ্ন

এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গণধর্ষণ : ৪ ছাত্রলীগ কর্মীর ছাত্রত্ব ও সার্টিফিকেট বাতিল

যুবকণ্ঠ ডেস্ক;

সিলেট এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গণধর্ষণের ঘটনায় এজাহারনামীয় ৪ আসামীর ছাত্রত্ব এবং সার্টিফিকেট বাতিল করেছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়। এছাড়াও স্থায়ীভাবে এমসি কলেজ থেকে বহিষ্কারও করা হয়েছে তাদের। সোমবার (১২ অক্টোবর) জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট কমিটির বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন এমসি কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর সালেহ আহমদ। বহিস্কৃতরা হচ্ছে, ১. বিএসএস ডিগ্রি পাস কোর্সের ২০১২-১৩ শিক্ষাবর্ষের অনিয়মিত ছাত্র সাইফুর রহমান (২৮)। রেজিঃ নং ২৯৪৯৪১৩। ২. ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের ইংরেজি মাস্টার্স ফাইনাল বর্ষের নিয়মিত শিক্ষার্থী শাহ মাহবুবুর রহমান ওরফে রনি (২৫)। রেজিঃ নং- ১৬৩১১০২৩১৪২। ৩. বিএসএস ডিগ্রি পাস কোর্সের ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষের নিয়মিত শিক্ষার্থী রবিউল ইসলাম (২৫)। রেজিঃ নং- ১৩১০২০৫১২৪৮। ৪. ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের ইংরেজি বিভাগের মাস্টার্স ফাইনাল বর্ষের নিয়মিত শিক্ষার্থী মাহফুজুর রহমান মাসুম (২৫)। রেজি নং ১৭৩১১০২৪৪৮৪। এই ৪জনই গণধর্ষণ মামলার আসামি। এর মধ্যে সাইফুর এই মামলার প্রধান আসামি। এ ঘটনার দায় স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন ৪জনই।
প্রসঙ্গত, গত ২৫ সেপ্টেম্বর রাত সাড়ে ৭ টার দিকে সিলেট এমসি কলেজের ছাত্রাবাসে বালিকা বধূ গণধর্ষণ করে কয়েকজন ছাত্রলীগ কর্মী। এ ঘটনায় ৬ জনকে আসামি করে এসএমপির শাহপরাণ থানায় মামলা দায়ের করেন ধর্ষণের শিকার বালিকা বধূর স্বামী মাইদুল ইসলাম। মামলার এজাহারভুক্তরা হলেন- সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার উমেদনগরের রফিকুল ইসলামের ছেলে তারেকুল ইসলাম তারেক (২৮), হবিগঞ্জ সদরের বাগুনীপাড়ার মো. জাহাঙ্গীর মিয়ার ছেলে শাহ মো. মাহবুবুর রহমান রনি (২৫), জকিগঞ্জের আটগ্রামের কানু লস্করের ছেলে অর্জুন লস্কর (২৫), দিরাই উপজেলার বড়নগদীপুর (জগদল) গ্রামের রবিউল ইসলাম (২৫) ও কানাইঘাটের গাছবাড়ি গ্রামের মাহফুজুর রহমান মাসুম (২৫)। এছাড়া আরও অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে ৩ জনকে। মামলার এজাহারনামীয় সকল আসামী সহ সন্দেহভাজন আরো ২ আসামীকে গ্রেফতার করতে সমর্থ হয় আইনশৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী। গ্রেফতার পর ৫দিনের রিমান্ডেও নেয়া হয় তাদের। রিমান্ড শেষে ১৬৪ ধারায় ধর্ষণ ঘটনার দায় স্বীকার করে জবানবন্দিও প্রদান করেছে আদালতে তারা।

এই পোষ্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন।

Design & developed by Masum Billah