মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ১০:২১ পূর্বাহ্ন

শিরোনামঃ
ইসলামের দৃষ্টিতে মূর্তি ও ভাস্কর্য ভাস্কর্য না করে স্মৃতি মিনার করুন, তাতে বঙ্গবন্ধুর আত্মা শান্তি পাবে : মুফতী ফয়জুল করীম মহাখালীতে সাততলা বস্তিতে আগুন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী হচ্ছেন জামালপুর-২ আসনের এমপি ফরিদুল হক খান মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ কে অনতিবিলম্বে নিষিদ্ধ ঘোষণা করতে হবে: সম্মিলিত কওমী প্রজন্ম ব্রাহ্মণবাড়িয়া ইসলামে মূর্তি ও ভাস্কর্য অবৈধ: ড. ইউসুফ আল-কারযাভী ভাস্কর্য ও মূর্তির অপব্যাখ্যাকারীরা হক্কানী আলেম হতে পারে না : বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন নামাজরত অবস্থায় ইমামের মৃত্যু উগ্রবাদী ও পাকিস্তানপন্থীরা এখন হেফাজতের নেতৃত্বে: মাওলানা জিয়াউল হাসান সময় এসেছে ওআইসির নেতৃত্বে সর্বভারতীয় মুসলিম দল গড়ার

নবীর ইজ্জত রক্ষায় প্রয়োজনে শহীদ হবো আল মাদানী ফাউন্ডেশনের প্রতিবাদ সভায় বক্তারা

বিশ্ব মানবতার মুক্তির দূত, শান্তির প্রতীক প্রিয় নবী মুহাম্মাদুর রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর ইজ্জত রক্ষায় প্রয়োজনে আমরা শহীদ হবো, তারপরও আল্লাহর রাসূলের বিরুদ্ধে অবমাননাকর কোন বিষয় সহ্য করবো না। মুসলমানেরা প্রিয় নবী মুহাম্মাদুর রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে নিজেদের প্রাণের চেয়েও বেশি ভালবাসেন। ফ্রান্সের দুটি শহরের দুটি সরকারি ভবনে রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় মহানবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের ব্যঙ্গ কার্টুন প্রদর্শন করে পুরো বিশ্বের পৌনে দুইশত কোটি মুসলমানের হৃদয়ে চরমভাবে আঘাত করেছে ফ্রান্স। ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের এই গর্হিত কাজের জন্য ক্ষমা চাইতে হবে। অন্যথায় মুসলিম বিশ্ব তাদের সাথে সম্পর্ক ছিন্ন করতে বাধ্য হবে।
আল মাদানী ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ উদ্যোগে প্রতিবাদ মিছিল পূর্ব সমাবেশে বক্তারা এসব কথা বলেন।

আজ সোমবার (২৬ অক্টোবর) বাদ আসর আল-মাদানী ফাউন্ডেশন বাংলাদেশের উদ্যোগে রাষ্ট্রীয়ভাবে ফ্রান্সে রাসূল সা. এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ সংগঠনের চেয়ারম্যান মুহাম্মদ ইমতিয়াজ উদ্দিন সাব্বির এর সভাপতিত্বে ও মহাসচিব রাকিবুল ইসলাম কাঞ্চন এর পরিচালনায় রাজধানীর মুগদা বিশ্বরোডে অনুষ্ঠিত হয়।

বক্তব্য রাখেন সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা আলহাজ্ব সৈয়দ জহির উদ্দিন, উপদেষ্টা মুহাম্মদ আতাউর রহমান, হাজী আমির হোসেন পাটোওয়ারী, শোভন সরকার, ইসমাঈল হোসেন জুয়েল, সোহরাব হোসেন, মুফতি দিলাওয়ার হোসাইন, মাওলানা আবদুস সাত্তার, মাওলানা কাউছার আহমদ ফরাজী, মাওলানা ফয়জুল্লাহ, মুফতী ইমদাদ উল্লাল, সোহেল রানা, একরাম হোসেন, মাওলানা নূর মোহাম্মদ, ইসতিয়াক হোসেন, হাফেজ মাহমুদুল হাসান, মোক্তাদির আলম, হাফেজ মাহদী হাসান, মারিফ ইসলাম, রবিউল ইসলাম, রায়হান ইসলাম, তরিকুল ইসলাম, ইয়াসিন আরাফাত, সাহিল মাহমুদ, মেরাজ উদ্দীন, রিদওয়ান রহিম, সংগ্রাম, সিরাজ, বিল্লাল, রিজন প্রমুখ।

সংগঠনের চেয়ারম্যান আরো বলেন, সারা বিশ্বে প্রতিবাদ ঝড় শুরু হয়েছে এবং মুসলমানরা স্বতঃস্ফূর্তভাবে তাদের পণ্য বর্জন করা শুরু করেছে। যদি তারা তাদের এই সিদ্ধান্ত থেকে ফিরে না আসে তাহলে মুসলমানেরা আরো কঠোর সিদ্ধান্ত নিবে। ইনশাআল্লাহ।

বক্তারা জাতিসংঘসহ সকল মানবাধিকার সংগঠনের প্রতি ফ্রান্সের মুসলমানদের নিরাপত্তার ব্যবস্থা জোরদার করার জন্য জোর দাবি জানান।

বার্তা প্রেরক
মুহাম্মদ রায়হান ইসলাম
প্রচার সম্পাদক
মোবাইলঃ +8801924787156

এই পোষ্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন।

Design & developed by Masum Billah