মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১, ০৯:৪৮ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম:

বিনা ভোটের সরকার ভারতের পক্ষ নিয়ে দেশের জনগণের রক্ত ঝরাচ্ছে: মুফতি মনির হোসাইন কাসেমী

যুবকণ্ঠ ডেস্ক:

জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ-এর যুগ্মমহাসচিব মুফতি মনির হোসাইন কাসেমী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশে সফরের প্রতিবাদে দেশের বিভিন্ন স্থানে স্বত:স্ফূর্ত বিক্ষোভে নিরীহ জনতার উপর পুলিশ, ছাত্রলীগ ও যুবলীগের হামলা, গুলিবর্ষণ ও হতাহতের ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন। তিনি এ ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত ও দোষীদের কঠোর শাস্তি দাবি করে বলেছেন, ‘বিনা ভোটের অবৈধ সরকার ভারতের পক্ষ নিয়ে দেশের জনগণের রক্ত ঝরাচ্ছে’।

আজ (২৬ মার্চ) শুক্রবার বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে তিনি আরো বলেন, ভারতীয় উপমহাদেশ ব্যাপী সাম্প্রদায়িক বিভাজন সৃষ্টিকারী ও মুসলিমবিদ্বেষী নগ্নভূমিকার জন্য দায়ী নরেন্দ্র মোদিকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ না জানানোর জন্য দেশের শান্তিকামী জনতা লাগাতার প্রতিবাদ ও দাবি জানিয়ে আসছে। কিন্তু সরকার জনগণের মতামতের তোয়াক্কা না করে নরেন্দ্র মোদীকে বাংলাদেশে নিয়ে এসেছে।

তিনি বলেন, ভারতের প্রধানমন্ত্রীর বাংলাদেশ সফরের শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ জানাতে ঢাকার বায়তুল মোকাররম ও চট্টগ্রামের হাটহাজারীসহ দেশের বিভিন্ন মসজিদের মুসল্লীরা আজ বাদ জুমা বিক্ষোভ মিছিল বের করে।কিন্তু পুলিশ বিনা উস্কানীতেই প্রতিবাদি জনতার উপর হামলে পড়ে টিয়ার শেল নিক্ষেপ, নির্দয় লাঠিপেটা ও গুলিবর্ষণ শুরু করে। পুলিশের সাথে যোগ দেয় ছাত্র লীগ ও যুবলীগের গুণ্ডারা। তারা জুতা পায়ে মসজিদ অপবিত্র করে এবং রাম দা ও লাঠি হাতে শত শত মুসল্লীকে রক্তাক্ত করে। এতে চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে চার জন মাদ্রাসা ছাত্র শাহাদাত বরণ করেন এবং হাটহাজারী, ঢাকা’সহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বহু মুসল্লী আহত হন। আহতদের বেশ কয়েক জনের অবস্থা আশংকাজনক বলেও খবরে জানা গেছে।

মুফতি মনির হোসাইন কাসেমী বলেন, আমরা দীর্ঘ দিন ধরে বলে আসছি যে, মধ্যরাতে ভোটার বিহীন নির্বাচনের অবৈধ সরকার ক্ষমতা পাকাপোক্ত ও নিরাপদ রাখতে দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বকে বিকিয়ে দিয়ে ভারতের সেবাদাসের ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে। বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি উৎসবের সূবর্ণ জয়ন্তি অনুষ্ঠানে জনগণের জোরালো প্রতিবাদের তোয়াক্কা না করে চরম সাম্প্রদায়িক নরেন্দ্র মোদিকে এনেই শুধু ক্ষ্যান্ত হয়নি, বরং মোদির দাসত্বে নজরানা পেশ করতে নিরীহ জনতার বুকে বুলেট বিদ্ধ করে রক্তাক্ত ও শহীদ করেছে। স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তিতে যেদিন দেশের সকল মানুষ মিলে আনন্দ উদযাপনের কথা, সেদিন সরকার আধিপত্যবাদি শক্তির পক্ষ নিয়ে জনগণের রক্ত নিয়ে হোলি খেলা শুরু করেছে। এর খেসারাত এই অবৈধ সরকারকে দিতে হবে।

মুফতি মনির হোসাইন কাসেমী বলেন, আমরা সুস্পষ্টভাবে বলতে চাই, আজকে প্রতিবাদি নিরীহ জনতার উপর পুলিশ, ছাত্র লীগ ও যুব লীগের গুণ্ডা বাহিনীর সন্ত্রাসী হামলায় জড়িতদের কঠোর বিচার করতে হবে। হাটহাজারীতে প্রতিবাদরত নিরীহ মাদ্রাসা ছাত্রদের উপর গুলি বর্ষণকারী খুনি পুলিশ সদস্য ও হুকুমদাতাকে চিহ্নিত করে সর্বোচ্চ শাস্তি দিতে হবে। সর্বোপরি দেশ ও জনগণের স্বার্থের বিরুদ্ধে অবস্থানগ্রহণকারী বর্তমান অবৈধ সরকারকে অনতিবিলম্বে পদত্যাগ করে অন্তর্বর্তি সরকারের অধীনে নিরপেক্ষ নির্বাচনের পথ সুগম করতে হবে। অন্যথায় দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বকে নিরাপদ রাখতে ও জনঅধিকার প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে জনগণের ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের জোয়ারে এই অবৈধ সরকার খড়কুটোর মতো ভেসে যেতে সময় লাগবে না। – বিজ্ঞপ্তি।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved ©2020 jubokantho24.com
Website maintained by Masum Billah