শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১, ০২:১৩ পূর্বাহ্ন

যুবকণ্ঠ ডেস্ক; 

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে রিসোর্টে অবরুদ্ধ হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হক মুক্ত হয়েছেন। মুক্তির পরপরই হেফাজত কর্মীদের শান্ত থাকার আহ্বান জানান তিনি।

 

শনিবার (৩ এপ্রিল) বিকেল ৩টায় রয়াল রিসোর্টের ৫ম তালার ৫০১ নম্বর কক্ষে দ্বিতীয় স্ত্রী আমিনা তৈয়বসহ মামুনুল হককে অবরুদ্ধ করা হয়। পরে হেফাজত কর্মীরা তাকে উদ্ধার করে।

 

এরপর সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় মুক্ত হয়ে তিনি বলেন, আপনাদের ভালোবাসার জন্য আমি কৃতজ্ঞ। সাংবাদিক ও পুলিশ আমার সঙ্গে কোনো খারাপ আচরণ করেনি। কিছু বাইরের লোক খারাপ আচরণ করেছে। আমি আমার দ্বিতীয় স্ত্রীকে নিয়ে এখানে ঘুরতে এসেছিলাম। আপনারা শান্ত থাকুন।

 

এ বিষয়ে মাওলানা মামুনুল হক রাত ৮টা ৫০ মিনিটের দিকে তার ফেসবুক পেজে একটি পোস্ট করেছেন। তিনি লিখিছেনে,

 

‘‘আমি নিরাপদে আছি, পুলিশ প্রশাসনের সহযোগিতায় পরিস্থিতি সম্পূর্ণ স্বাভাবিক ! কেউ কোনো গুজবে বিভ্রান্ত হবেন না !’’

 

এ ঘটনায় বরেণ্য ওয়ায়েজ (বক্তা) মাওলানা হাসান জামিল তার ফেসবুক পেজে একটি পোস্ট করেছেন। তিনি লিখেছেন, ক’দিন থেকেই বলছিলেন, ‘একদম হাঁপিয়ে গেছি।’ পরামর্শ দিয়েছিলাম কোথাও থেকে বেড়িয়ে আসেন। কিছু সময় নিরিবিলি কাটান। তিনি তাই করেছেন। সোনারগাঁয়ের এই হোটেলটা পছন্দের, হোটেলের সব স্টাফ ওনাকে প্রচন্ড ভালোবাসেন! নিরিবিলি আর নিরাপদ ভেবেই অবকাশ যাপনে গিয়েছেন ২য় ভাবীকে নিয়ে।

 

দুর্ভাগ্য, শিয়াল পালের হাতে পড়েছেন! যে বিষয়টা স্ত্রী, আপনজন, বন্ধুমহল সবাই জানেন তা নিয়ে ওদের কি তুঘলকি কাণ্ড!(আছি সুনামগঞ্জ, না হয় সাক্ষী হিসেবে নিজেই হাজির হতাম) ইচ্ছে করেই যেন ওরা পরিস্থিতিকে চরম ঘোলাটে করছে!মা’বূদ হেফাজত করো- ভাইকে, জাতিকে, দেশকে!

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved ©2020 jubokantho24.com
Design & Developed BY Masum Billah