সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ১০:৫৯ অপরাহ্ন

শিরোনাম:
করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট: এইচএসসি পরীক্ষা হবে কিনা জানালেন শিক্ষামন্ত্রী ১৪ মাসে হেফাজতের শীর্ষ চার নেতার ইন্তিকাল ভারতের ‘ওমিক্রন ঝুঁকিপূর্ণ’ দেশের তালিকায় বাংলাদেশ ওমিক্রন: দক্ষিন আফ্রিকা থেকে আসা ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ৭ ব্যক্তির বাড়িতে লাল পতাকা হেফাজতের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব হলেন মাওলানা সাজিদুর রহমান আল্লামা নুরুল ইসলামের জানাজার নামাজ সম্পন্ন আল্লামা নুরুল ইসলামের ইন্তেকালে ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলনের শোক প্রকাশ যে কারণে হাটহাজারিতে হচ্ছে আল্লামা নূরুল ইসলাম জিহাদির দাফন হেফাজত মহাসচিবের ইন্তিকালে আল্লামা মুহাম্মদ ইয়াহইয়ার গভীর শোক আল্লামা নুরুল ইসলামের ইন্তেকালে ইসলামী ছাত্রশিবিরের গভীর শোক প্রকাশ

নামাজরত ব্যক্তির সামনে দিয়ে অতিক্রম করার বিধান

যুবকণ্ঠ ডেস্ক:

কোনো নামাজির সামনে দিয়ে অতিক্রম করতে হাদিসে নিষেধ করা হয়েছে। তবে নির্দিষ্ট পরিমাণ দূরত্ব দিয়ে কিংবা নামাজির সামনে কোনো কিছু দিয়ে আড়াল করে নামাজিকে অতিক্রম করা যাবে। নামাজির সামনে কোনো রেখে যাওয়ার বস্তুকে ‘সুতরা’ বলে।

এক্ষেত্রে ইসলামের বিধান হলো, নামাজির সামনে যদি সুতরা না থাকে এবং মসজিদ বেশ বড় ও অনেক প্রশস্ত হয় তাহলে নামাজি ব্যক্তির দুই কাতার সামনে দিয়ে অতিক্রম করা যাবে। তবে বিশেষ প্রয়োজন না থাকলে এভাবে অতিক্রম না করা উত্তম। -খুলাসাতুল ফাতাওয়া: ১/৫৯

তবে প্রয়োজনে নামাজির সামনে সুতরার ব্যবস্থা করে অতিক্রম করা যাবে। এক হাত বা তার চেয়ে দীর্ঘ কোনো বস্তু যেমন- চেয়ার, টুল ও কাঠের স্ট্যান্ড ইত্যাদি সুতরা হিসেবে ব্যবহার করা যাবে। নামাজির সামনে তা দাঁড় করিয়ে রাখতে হবে। -সহিহ মুসলিম: ৪৯৯

নামাজি ব্যক্তির সামনে অবস্থানকারী প্রয়োজনে ডানে-বামে সরে যেতে পারবেন। এতে নামাজির সামনে দিয়ে অতিক্রম করার গোনাহ হবে না। হাদিস শরিফে যে নিষেধাজ্ঞা এসেছে, তা নামাজি ব্যক্তির সামনে দিয়ে চলাচল করা বা আসা-যাওয়া করার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য। অবশ্য নামাজির সামনে অবস্থানকারী ব্যক্তির প্রয়োজন না থাকলে অপেক্ষা করা ভালো। এ সময়টুকু ইবাদত হিসেবে গণ্য হবে। বিশেষ করে যখন সরে গেলে অন্য মানুষদের নামাজির সামনে দিয়ে অতিক্রম করার আশংকা থাকে তখন বিনাপ্রয়োজনে না সরাই উচিত। -ফাতাওয়া তাতারখানিয়া: ২/২৮৬

আগেই বলা হয়েছে, প্রয়োজন থাকলে নামাজির সামনে উপস্থিত ব্যক্তি ডানে বা বামে সরে যেতে পারবে। কেননা সামনে থেকে সরে যাওয়া অতিক্রমের হুকুমে নয়। উম্মুল মুমিনীন হজরত আয়েশা (রা.) বলেন, আমি নবী করিম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে দেখেছি, তিনি নামাজ আদায় করছেন আর আমি তার ও কিবলার মাঝে খাটে শুয়ে থাকতাম। কোনো কোনো সময় আমার বের হবার দরকার হত। কিন্তু আমি তার সামনে দিয়ে যেতে অপছন্দ করতাম। তাই আমি চুপে চুপে সরে পড়তাম। -সহিহ বোখারি: ৫১১

তবে নামাজি ব্যক্তির সামনে দিয়ে অন্যান্য মুসল্লি বা সাধারণ মানুষের চলাচলের সম্ভাবনা থাকলে নামাজ শুরুর আগে সুতরা সামনে রেখে নামাজে দাঁড়ানো সুন্নত।

আরেকটি বিষয়, অনেক সময় দেখা যায়, ফরজ নামাজের জামাতে সামনের কাতারে জায়গা ফাঁকা রেখে মুসল্লিরা পেছনের কাতারে দাঁড়িয়ে যায় এবং তাদের সামনে দিয়ে অতিক্রম করা ছাড়া সামনের কাতার পুরা করা সম্ভব হয় না। এমতাবস্থায় কাতার পুরা করার জন্য প্রয়োজনে ওই মুসল্লিদের সামনে দিয়ে অতিক্রম করা যাবে। এতে নামাজির সামনে দিয়ে অতিক্রমের গোনাহ হবে না। আর কাতারের মাঝে ফাঁকা রাখা মাকরূহ তাহরিমি। এটা সব মুসল্লির খেয়াল রাখা দরকার।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved ©2020 jubokantho24.com
Website maintained by Masum Billah