শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:২৯ অপরাহ্ন

আরও দুই প্রাদেশিক রাজধানী তালেবানের

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুল দখলের পথে আরও এক ধাপ এগিয়ে গেলো সরকারি বাহিনীর সঙ্গে লড়াইরত দেশটির সশস্ত্র বিদ্রোহীগোষ্ঠী তালেবান। আজ শনিবার তালেবান যোদ্ধাদের হাতে পাকতিকা ও কুনার প্রদেশের রাজধানীর পতন হয়েছে। -বিবিসি

দেশটির পাকতিকা প্রদেশের আঞ্চলিক পরিষদের প্রধান বিবিসিকে নিশ্চিত করেছেন, শনিবার সকালে প্রাদেশিক পরিষদের রাজধানী শরন দখল করে নিয়েছে তালেবান যোদ্ধারা। সরকারি সব দফতর এখন তালেবানের নিয়ন্ত্রণে। তিনি বলেছেন, প্রাদেশিক গোয়েন্দা বিভাগ, গভর্নরের কার্যালয়, প্রাদেশিক পুলিশ সদরদফতর এবং সেখানকার কারাগারগুলোর নিয়ন্ত্রণ এখন তালেবানের হাতে। উল্লেখ্য, আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুল থেকে ১২৪ মাইল দূরে শরন শহরটি অবস্থিত।

এদিকে শনিবার একইদিনে তালেবানের হাতে দেশটির কুনার প্রদেশের রাজধানী আসাদাবাদের পতন হয়েছে। স্থানীয় এক আইনপ্রণেতা (এমপি) বিবিসিকে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। আসাদাবাদের অবস্থান রাজধানী কাবুল থেকে ১৪৬ মাইল দূরে।

টুইটারে পোস্ট হওয়া ভিডিওতে শহরের রাস্তায় মানুষকে তালেবানের পতাকা হাতে ঘুরে বেড়াতে দেখা গেছে। উল্লেখ্য, গত ৬ আগস্ট শুক্রবার থেকে তালেবান যোদ্ধারা আফগানিস্তানের ৩৪টি প্রদেশের অন্তত ১৯টির রাজধানী নিজেদের দখলে নিয়েছে। দেশটি থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহার শুরু হওয়ার পর একের পর এক এলাকা দখল করছে তালেবান। অনেক এলাকায় আফগান সরকারি বাহিনীর লড়াই চলছে। ইতোমধ্যে কাবুল থেকে মাত্র ১১ মাইল দূরে পৌঁছে গেছে তালেবান বাহিনী।

রাজধানী অভিমুখে বেসামরিক নাগরিকদের ঢল শুরু হয়েছে। তালেবান অপ্রতিরোধ্য গতিতে রাজধানীর দিকে এগিয়ে আসায় যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক ও দূতাবাসের কর্মীদের জরুরি ভিত্তিতে ফিরিয়ে নেওয়ার জন্য মার্কিন ও ব্রিটিশ সৈন্যরা কাবুলে পৌঁছেছেন। সহিংসতা এড়াতে চলছে কূটনৈতিক তৎপরতাও। কাতারের রাজধানী দোহায় আফগান সরকার ও তালেবানের প্রতিনিধিদের নিয়ে বৈঠক করেছেন বিভিন্ন দেশের কূটনীতিকেরা। এরই মধ্যে আফগান সরকার তালেবানকে ক্ষমতা ভাগাভাগির প্রস্তাব দেয়।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved ©2020 jubokantho24.com
Website maintained by Masum Billah