সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ১১:২১ অপরাহ্ন

শিরোনাম:
করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট: এইচএসসি পরীক্ষা হবে কিনা জানালেন শিক্ষামন্ত্রী ১৪ মাসে হেফাজতের শীর্ষ চার নেতার ইন্তিকাল ভারতের ‘ওমিক্রন ঝুঁকিপূর্ণ’ দেশের তালিকায় বাংলাদেশ ওমিক্রন: দক্ষিন আফ্রিকা থেকে আসা ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ৭ ব্যক্তির বাড়িতে লাল পতাকা হেফাজতের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব হলেন মাওলানা সাজিদুর রহমান আল্লামা নুরুল ইসলামের জানাজার নামাজ সম্পন্ন আল্লামা নুরুল ইসলামের ইন্তেকালে ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলনের শোক প্রকাশ যে কারণে হাটহাজারিতে হচ্ছে আল্লামা নূরুল ইসলাম জিহাদির দাফন হেফাজত মহাসচিবের ইন্তিকালে আল্লামা মুহাম্মদ ইয়াহইয়ার গভীর শোক আল্লামা নুরুল ইসলামের ইন্তেকালে ইসলামী ছাত্রশিবিরের গভীর শোক প্রকাশ

আসল গরুর দুধে সোনা রয়েছে: বিজেপি নেতা দিলীপ

আসল গরুর দুধে সোনা রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। শুক্রবার কলকাতার হেস্টিংসে রাজ্য বিজেপির কার্যালয়ে দলের কৃষক শাখার কর্মসূচিতে তিনি ওই মন্তব্য করেন।
দিলীপ বলেন, ‘‘কলকাতা বা তার আশপাশের জেলায় গরু পালন প্রায় হয়ই না। আমরা প্যাকেট দুধ খাচ্ছি। আমি বলেছিলাম, দুধে সোনা পাওয়া যায়। অনেকে তার বিরোধিতা করেছিলেন।কিন্তু যারা আসল দুধই খাননি, তারা সোনার দর বুঝবেন কীভাবে?’’

তার ওই বক্তব্য ঘিরে আবারও আলোচনা-সমালোচনা শুরু হয়েছে।

আনন্দবাজার পত্রিকার খবরে বলা হয়, বিজেপি কিসান মোর্চার সেই অনুষ্ঠানেই রাজ্যে পশুপালনে জোর দেওয়া প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেন। সেই প্রসঙ্গ পরে ওঠে সংবাদ সম্মেলনেও।

খবরে বলা হয়, অতীতে গরুর দুধ প্রসঙ্গে মন্তব্য করে দলের বাইরে তো বটেই, ভিতরেও সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন দিলীপ। আক্রমণ শানিয়েছিলেন তৃণমূল নেতারাও। এবারেও তার ব্যতিক্রম হয়নি।

পশ্চিমবঙ্গের পরিবহন মন্ত্রী ও তৃণমূল কংগ্রেস নেতা ফিরহাদ হাকিম বলেন, ‘দিলীপবাবু যদি সেই আসল গরুর সন্ধান দিতে পারেন, তাহলে তা নিয়ে গবেষণার ব্যবস্থা হবে।’’

এর আগে ২০১৯ সালের ৫ নভেম্বর ‘গরুর দুধে সোনা’ প্রসঙ্গে মন্তব্য করে দিলীপ বিতর্কে জড়িয়েছিলেন। লোকসভা নির্বাচনের পর সদ্য এমপি হওয়া দিলীপ বর্ধমান শহরের টাউনহলে ‘ঘোষ এবং গাভীকল্যাণ সমিতির সভায় দিলীপ বলেছিলেন, ‘গরুর দুধে সোনার ভাগ থাকে। তাই দুধের রং হলুদ হয়। দেশি গরুর কুঁজের মধ্যে স্বর্ণনাড়ি থাকে। সূর্যের আলো পড়লে, সেখান থেকে সোনা তৈরি হয়।

আনন্দবাজার পত্রিকার খবরে বলা হয়, দিলীপের এই মন্তব্যের পরে জোর বিতর্ক শুরু হয়। নেটমাধ্যমে তো বটেই বিজ্ঞানী-বিশেষজ্ঞরাও ‘দিলীপ-তত্ত্ব’ শুনে অবাক হয়েছিলেন। বলেছিলেন, এমন ‘বৈজ্ঞানিক’ গবেষণা পৃথিবীর কোথাও হয়েছে বলে তাদের জানা নেই।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved ©2020 jubokantho24.com
Website maintained by Masum Billah