বুধবার, ২৯ Jun ২০২২, ০৬:৩৭ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনামঃ

‘রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেওয়ার ষড়যন্ত্র মুসলমানরা বরদাশত করবে না’

বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের আমীর মাওলানা ইসমাঈল নূরপুরী, সিনিয়র নায়েবে মাওলানা ইউসুফ আশরাফ ও ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মাওলানা জালালুদ্দীন আহমদ এক যৌথ বিবৃতিতে বলেছেন, সংবিধানে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম আছে থাকবে কোনো ষড়যন্ত্রই তা
বাতিল করতে পারবে না। যে দেশের সংখ্যাগরিষ্ট্র জনগণ মুসলমান সে দেশে কিভাবে বার বার রাষ্ট্রধর্ম ইসলামকে বাদ দেওয়ার ষড়যন্ত্র করে তা আমাদের বোধগম্য নয়। এরা দেশ ও ইসলামের বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্রে মেতে উঠেছে। এরা দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে দেশে অশান্তি তৈরি করতে চায়। এরা দেশ, ইসলাম ও জাতির শত্রু। এদের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে।

মঙ্গলবার (২২ ফেব্রুয়ারি) সংবাদমাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে তারা এসব কথা বলেন।

নেতৃবৃন্দ বলেন, কেউ ইচ্ছা করলেই সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দিতে পারবে না। প্রধানমনত্রী শেখ হাসিনা ২০১১ সালের সংবিধানের ৫ম সংশোধনী পাস করেন। এতে কয়েকটি অনুচ্ছেদকে সংবিধানের মৌলিক কাঠামো হিসাবে নির্ধারণ
করা হয়। এই মৌলিক কাঠামো কারো পক্ষেই সংশোধন করা সম্ভব নয়। বর্তমান সংবিধান অনুযায়ি রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম হচ্ছে সংবিধানের প্রথম ভাগের অংশ(২ক)। আর সংবিধানের প্রথম হলো সংশোধন অযোগ্য সুতরাং কোনো দল বা গোষ্ঠী চাইলেও
সংবিধানের মৌলিক কাঠামো সংশোধন করতে পারবে না।

তারা বলেন, কেউ যদি মৌলিক কাঠামো পরিবর্তন করে তাহলে তা শাস্তি যোগ্য অপরাধ বলে বিবেচিত হবে। সুতরাং যারা বার বার বিষয়টি কোর্টে আলোচনা ও শুনানির চেষ্টা করছেন তাদের উচিৎ হবে সংবিধান ভালো করে পড়ে নেওয়া।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2019 LatestNews
Design & Developed BY ithostseba.com