বুধবার, ২৯ Jun ২০২২, ০৬:০৯ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনামঃ

বন্যার্তদেরকে নগদ অর্থ দিল হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ

যুবকণ্ঠ ডেস্ক:

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের উদ্যোগে সিলেটে বন্যা কবলিত গোয়াইনঘাট এলাকার অসহায় মানুষের মাঝে নগদ অর্থ বিতরণ করেছে এশিয়ার সর্ববৃহৎ অরাজনৈতিক সংগঠন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ।

সোমবার (৩০ মে) হযরত শাহ জালালের পূণ্যভূমি খ্যাত সিলেটে বন্যা কবলিত এলাকা গোয়াইনঘাটের দুই স্থানে দুই শতাধিক পরিবারের মাঝে নগদ অর্থ বিতরণ করা হয়।

সংগঠনের মহাসচিব আল্লামা সাজিদুর রহমান এর তত্ত্বাবধানে একটি প্রতিনিধি দল এই নগদ অর্থ বিতরণ করেন।

এ সময় মহাসচিব বলেন, জলে ও স্থলে মানুষের উপর যত বিপর্যয় আসে তা তাদের কৃতকর্মের ফল। আজ সমাজে বেহায়াপনা, অন্যায়, পাপাচার বেড়ে যাওয়ায় আল্লাহ মহামারি, রোগব্যাধি ও প্রাকৃতিক দুর্যোগের মাধ্যমে সতর্ক করছেন। আমাদেরকে এসব দুর্যোগ থেকে মুক্তি পেতে তওবাহ করতে হবে। সবর করে গুনাহমুক্ত জীবন গড়তে হবে। তাহলেই আল্লাহ আমাদেরকে প্রাকৃতিক বিপর্যয় থেকে হেফাজত করবেন।

তিনি আরো বলেন, এখন বন্যা পরবর্তী পূনর্বাসন পক্রিয়ায় বন্যাদুর্গত মানুষদেরকে সর্বাত্মকভাবে সাহায্য করা প্রয়োজন। এটা আল্লাহর আদেশ। এ অবস্থায় সব ভেদাভেদ ভুলে আমাদেরকে দুর্গত জনগণকে রক্ষায় এগিয়ে আসতে হবে। এখানে কোন ধরনের রাজনীতি নয়, সংকীর্ণতা এবং বিভেদ নয়। আসুন সব ভেদাভেদ ভুলে দুর্গতদের রক্ষায় এগিয়ে আসি। বিশেষভাবে তিনি তাদের সাহায্যার্থে সরকার ও দেশের বিত্তবানদের এগিয়ে আসার জন্য উদাত্ত আহবান জানান।

এছাড়া প্রচার সম্পাদক মাওলানা মুহিউদ্দীন রাব্বানী বলেন, হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ আত্মমানবতার সেবায় নিবেদিত একটি অরাজনৈতিক দ্বীনি সংগঠন। হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ এবং এ দেশের আলেম-উলামারা বরাবরই দেশের যে কোনো দূর্যোগে অসহায় মানুষের পাশে সর্বোচ্চ মানবিকতার হাত বাড়িয়ে দাঁড়িয়েছে। এবারো তার ব্যত্যয় ঘটেনি। সাথে সাথে যে সমস্ত সংগঠন ও মানবিক ব্যক্তি বন্যা দুর্গত মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন তাদের প্রতি তিনি আন্তরিক মুবারকবাদ জানান।

পরিশেষে নায়েবে আমীর আল্লামা মুহিব্বুল হক গাছবাড়ী এসব প্রাকৃতিক বিপর্যয় সহ সকল দূর্যোগ, বালা-মুসিবত থেকে দেশ-জাতিকে হেফাজতের জন্য এবং দেশের সর্বাত্মত সমৃদ্ধির জন্য আল্লাহর নিকট দু’আ করেন।

প্রতিনিধি দলে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনটির নায়েবে আমীর আল্লামা মুহিব্বুল হক গাছবাড়ী, নায়েবে আমীর মাওলানা মোবারক উল্লাহ, সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা মীর ইদ্রিস, প্রচার সম্পাদক মাওলানা মুহিউদ্দীন রাব্বানী ও দাওয়াহ সম্পাদক মাওলানা আব্দুল কাইয়ুম সোবহানী।

স্থানীয় উলামায়ে কেরামদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, মাওলানা জুনায়েদ বিন ইয়াহইয়া, মাওলানা জিল্লুর রহমান, মাওলানা ফখরুল ইসলাম, মাওলানা আফসার মাহমুদ, মুফতী আলী আকরাম, মাওলানা খালিদ বিন সাজিদুর রহমান, মাওলানা শাহজাহান, মাওলানা নুর মোহাম্মদ, হাফেজ সাজিদ বিন সেলিম প্রমূখ।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2019 LatestNews
Design & Developed BY ithostseba.com