শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩, ০৩:২২ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
আওয়ামী লীগকে রাজপথে দেখে ভীত বিএনপি: তথ্যমন্ত্রী বাংলাদেশে প্রভাব বিস্তারে ৩ পরাশক্তি লড়ছে কুরআন পোড়ানোর প্রতিবাদে সুইডিশ পণ্য বর্জনের আহ্বান হেফাজতের ‘বাবার পরিচয়হীন সন্তানের অভিভাবক মা হবে’ মর্মে রায় দেশের ধর্ম ও সংষ্কৃতির সাথে সাংঘর্ষিক আওয়ামী লীগ মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করে: নানক প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে ছাত্র জমিয়ত ঢাকা মহানগর উত্তরের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত ৪ দিন ধরে হাসপাতালে ভর্তি পরিকল্পনামন্ত্রী কাল পাঠ্যবইয়ের ভুল নিয়ে শিক্ষামন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন দেশের আকাশে পবিত্র রজব মাসের চাঁদ দেখা গেছে আমরা চাই দেশে সত্যিকার ইসলামের জ্ঞান চর্চা হোক: প্রধানমন্ত্রী

রায়পুরার আদিয়াবাদে সরকারি কালভার্ট বন্ধ করে প্রভাবশালীর মাছ চাষ

মীর সালমান:

নরসিংদীর রায়পুরার আদিয়াবাদে সড়ক ও জনপদ বিভাগের আদিয়াবাদ-রাধাগঞ্জ সড়কের (ডেংপাড়া নামক স্থানে) পানি নিষ্কাষণের জন্য নির্মিত একটি সরকারি কালভার্টের মুখ বন্ধ করে ইসমাঈল হোসেন নামে এক প্রভাবশালী ব্যক্তির মাছ চাষ করার অভিযোগ উঠেছে। সম্প্রতি প্রায় লাখ টাকা ব্যয়ে ওই কালভার্টটি পুননির্মাণ করে সড়ক ও জনপথ বিভাগ।

আদিয়াবাদ ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের একাধিক বাসিন্দা জানান, ওই ওয়ার্ডের পানি নিষ্কাষণের জন্য দীর্ঘ ৫০বছর পূর্বে এই কালভার্টটি তৈরী করা হয়। কিন্তু হঠাৎ করে কালভার্টটি বন্ধ করে দেয়ায় দেখা দিয়েছে জলাবদ্ধতা। সামান্য বৃষ্টিতেই তলিয়ে যাচ্ছে বসত বাড়ির আঙিনা ও ফসলি জমি। তৈরী করছে স্থায়ী জলাবদ্ধতা। এই জলাবদ্ধতার কারনে পানিবাহিত সংক্রমণেও ভুগছেন বলে অভিযোগ তাদের।

স্থানীয়রা আরও অভিযোগ করেন, সরকারি কালভার্টটি বন্ধ করে স্থাপনা নির্মাণের কাজ চললেও বিষয়টি বন্ধে তেমন কোনো উদ্যোগ নেওয়া হয়নি। এমন কি সরকারি রাস্তার পাড় কেটে বহুদিন ধরেই ইসমাঈল পুকুরে মাছ চাষ করছেন। ফলে ক’দিন পরপর-ই রাস্তার এই অংশে ভাঙন তৈরি হচ্ছে বলেও অভিযোগ স্থানীয়দের।

অপর একটি সূত্র জানায়, উল্লেখযোগ্য তেমন কোনো ব্যবসা না থাকলেও রাতারাতি আঙ্গুল ফোলে কলাগাছ হয়ে যাওয়া ইসমাঈল ক্ষমতার অবৈধ প্রভাব আর গায়ের জোরে সকলের চোখের সামনে সরকারি কালভার্ট বন্ধ করে কাজ করলেও এ বিষয়ে প্রতিবাদ জানাতে ভয় পাচ্ছে সাধারণ মানুষ।

অনতিবিলম্বে কালভার্টটি দিয়ে স্বাভাবিক পানি নিষ্কাষণের সকল বাঁধা অপসারণের দাবি জানিয়েছে স্থানীয়রা।

এ বিষয়ে রায়পুরা থানার ইউএনও আজগর হোসেন বলেন-লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে দ্রুতই এর এর সুরাহা করা হবে। এই বিষয়ে পরবর্তীতে বেশ কয়েকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও মিটিং ব্যস্ততায় ওনার সাথে আর কথা বলা সম্ভব হয়নি।

এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে আদিয়াবাদ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হাজি সেলিম বলেন, বিষয়টি সম্পর্কে আমি অবগত হয়েছি। রায়পুরার ইউএনও মহোদয়ও আমাকে বিষয়টা দ্রুত সমাধানের জন্য বলেছেন। বাকি কারো পারমিশন না নিয়ে সরকারি কালভার্ট বন্ধ করা অবশ্যই গুরুতর অপরাধ,যেটা তারা করেছে। এসময় তিনি দ্রুত এর সমাধান করবেন বলেও জানান।

আদিয়াবাদ ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য হুমায়ুন কবিরও এই গর্হিত কাজের নিন্দা জানান এবং দ্রুতই সমাধানের আশ্বাস দেন।

নিউজটি শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন

All rights reserved © Jubokantho24.com