শুক্রবার, ১৯ অগাস্ট ২০২২, ০২:২৮ পূর্বাহ্ন

হিজরী সন যেমনি আমাদের ইতিহাস ঐতিহ্যের তেমনি গৌরবেরও

  • মঞ্জুরুল হক নোমান
হিজরী সন ইসলামের নিদর্শনাবলির অন্যতম। আমরা যখনই হিজরী সালের মাধ্যমে তারিখ নির্ণয় করি তখন নিজেদেরকে স্বতন্ত্র বৈশিষ্ট্যের অধিকরী হিসেবে গর্ববোধ করি। হিজরী তারিখের মাধ্যমে মুসলমানরা দ্বীনি কার্যাবলির দিনক্ষণ নির্ধারণ ও ইবাদত- বন্দেগী করে থাকেন। ইসলামী শরীয়তে এমন কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিধান রয়েছে যা পালন করতে হিজরী তারিখের অপরিহার্যতা রয়েছে। যেমন- আইয়ামে বিজ তথা প্রতি আরবী মাসে ১৩, ১৪ ও ১৫ তারিখের রোজা। ১০ই মুহাররমে আশুরার রোজা।
পবিত্র মাহে রামাদানের রোজা। ঈদুল ফিতর ও ঈদুল আজহা আগমন প্রস্তান নির্ধারণ করা। পবিত্র হজ্জ্ব পালন ও বিধবা নারীদের ইদ্দত ৪ মাস ১০ দিন গণনা করা ইত্যাদি গুরুত্বপূর্ণ বিধানাবলি-সহ অনেক গুরুত্বপূর্ণ ইবাদত যাত হিজরী তারিখের উপর নির্ভরশীল।
উপরোল্লিখিত কোন একটি আমল হিজরী তারিখ ছাড়া ইংরেজি তারিখ হিসেবে আমলের কোন সুযোগ আছে কি? অবশ্যই নেই।
সুতরাং রাসূল সা. এর হিজরতকে স্বরণ রাখতে নিজেদের আদর্শিক হিজরী তারিখ ব্যবহারে সবাইকে তাগিদ দিতে হবে।
হিজরী সনকে বর্জন করে একে অবহেলায় নিক্ষেপ করার কোনো সুযোগ নেই।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2019 LatestNews
Design & Developed BY ithostseba.com