শুক্রবার, ১৯ অগাস্ট ২০২২, ০১:০৭ পূর্বাহ্ন

স্ত্রীরা কখন স্বামীর কাছে তালাক চাইতে পারবে?

ইসলাম ডেস্ক:

তালাক ইসলামে সবচেয়ে বৈধ নিকৃষ্ট কাজ। সমাজে নানান যৌক্তিক ও অযৌক্তিক কারণে তালাকের ঘটনা ঘটে। স্বামীরা এ তালাক প্রদান করেন। স্ত্রীরা যৌক্তিক ও প্রয়োজনীয় কারণে স্বামীর কাছে তালাক চাইতে পারেন। ইসলাম নারীর জন্য এ সুযোগ রেখেছে। বিবাহিত নারীরা কখন স্বামীর কাছে তালাক চাইতে পারে?

স্ত্রীরা কারণবশতঃ স্বামীর কাছে তালাক চাইতে পারে। যথাযথ কারণ থাকলে স্ত্রীর তালাক চাওয়া অবৈধ নয় বরং জায়েজ। যে সব কারণে স্বামীর কাছে স্ত্রীরা তালাক চাইতে পারবে, তাহলো-

১. স্ত্রীর ভরণ-পোষণ দিতে অক্ষম হলে।

২. শারীরিকভাবে অক্ষম হওয়ার কারণে স্ত্রীর জৈবিক চাহিদা পূরণে ব্যর্থ হয়।

৩. স্ত্রী ছাড়া অন্য নারীর প্রতি আসক্ত হয় তথা পরকীয়া, পাপাচারিতা কিংবা চারিত্রিক অন্যায়-অপকর্মে লিপ্ত হয়।

৪. বৈধ যে কোনো কারণে স্বামীর প্রতি মনে প্রচণ্ড ঘৃণা সৃষ্টি হলে।

৫. স্বামী দীর্ঘদিন ধরে কারাগারে বা কোথাও বন্দি থাকার ফলে স্ত্রী যদি নিরাপত্তাহীনতা কিংবা ক্ষয়-ক্ষতির আশংকা করে।

৬. স্বামী দীর্ঘ অনুপস্থিতির কারণে স্ত্রী যদি নিজের চারিত্রিক ক্ষতির সম্মুখীন হয়।

৭. ইসলামি শরিয়ত নির্দেশিত কারণ ছাড়া স্বামী যদি স্ত্রীকে শারীরিক আঘাত, অত্যাচার, অপমান কিংবা অভিশাপ ও গালাগালি দেয়।

৮. স্বামীর কোনো দুরারোগ্য বা সংক্রমক ব্যাধিতে স্ত্রী আক্রান্ত হওয়ার আশংকা থাকলে।

৯. স্ত্রীকে যদি নির্বাসিত জীবন-যাপনে অভ্যস্ত হতে বাধ্য করে। অথ্যাৎ স্ত্রীর বাবা-মা, ভাই-বোনসহ মাহরামদের সঙ্গে দেখা-সাক্ষাতে বাধা দেয়।

১০. নামাজ, রোজা, হজ, জাকাতসহ ইসলামের মৌলিক বিষয় সম্পর্কে কটুক্তি করার পাশাপাশি স্ত্রীকে ইসলামের বিধান পালনে বাধা দেয় কিংবা স্ত্রীকে কটুক্তি করে।

তবে এ সব ক্ষেত্রে স্ত্রী তার স্বামীর কাছ থেকে তালাক চাইতে পারে। এতে কোনো গুনাহ নেই বরং স্ত্রীর তালাক চাওয়া বৈধ।

তবে তালাক চাওয়ার ক্ষেত্রে তাড়াহুড়ো করার কোনো সুযোগ নেই। বরং তালাক চাওয়ার আগে স্বামীকে উল্লেখিত বিষয় সম্পর্কে বুঝানো কিংবা অভিভাবকের মাধ্যমে স্বামীকে সঠিক পথে আনার চেষ্টা করা জরুরি। যদি তাতেও সমাধান না হয় তবে এসব ক্ষেত্রে স্বামীর কাছে স্ত্রীর তালাক চাওয়া বৈধ।

মনে রাখা জরুরি

যেসব স্ত্রী কারণ ছাড়াই স্বামীর কাছে তালাক চায় হাদিসে তাদের ব্যাপারে কঠোর পরিণতির কথা বলা হয়েছে। রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন-

‘যদি কোনো নারী (স্ত্রী) অহেতুক তার স্বামীর কাছে তালাক চায় তবে তার জন্য জান্নাতের সুঘ্রাণও হারাম হয়ে যায়।’ (আবু দাউদ)

সুতরং বিবাহিত নারীদের উচিত উল্লেখিত বিষয়গুলোর প্রতি যথাযথ গুরুত্ব দেওয়া এবং নবিজি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের হাদিসের ওপর যথাযথ আমল করা।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহর সব স্ত্রীদের হাদিসের ওপর যথাযথ আমল করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2019 LatestNews
Design & Developed BY ithostseba.com