রবিবার, ০২ অক্টোবর ২০২২, ০৬:১৯ অপরাহ্ন

কাঁচা মরিচের ট্রিপল সেঞ্চুরি পার

যুবকণ্ঠ ডেস্ক:

লক্ষ্মীপুরের বাজারগুলোয় ট্রিপল সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছে কাঁচা মরিচ। বিক্রি হচ্ছে ৩২০ টাকা কেজি।

এতে প্রান্তিক ও নিম্ন আয়ের মানুষের ক্রয় ক্ষমতার বাইরে চলে গেছে মসলা জাতীয় পণ্যটি। খুব জরুরি না হলে সাধারণ মানুষ কাঁচামরিচ কিনছেন না

শুক্রবার (১২ আগস্ট) জেলা শহরের কাঁচা বাজার ঘুরে কাঁচামরিচের এ দাম জানা গেছে।

ক্রেতারা বলছেন, এক কেজি কাঁচা মরিচ ৩২০ টাকা, যা কেনা তাদের সাধ্যের বাইরে।  উচ্চবিত্তরা বেশি দামে কিনতে পারে, কিন্তু যারা দিন এনে দিন খেয়ে বাঁচে তাদের অবস্থা বেগতিক।

যারা কিনছেন, এক দেড়শ গ্রামের বেশি কিনছেন না। এক ক্রেতা জানালেন, তিনি ৮০ টাকায় ২৫০ গ্রাম মরিচ কিনেছেন।

মাত্র ১৫ দিন আগে কাঁচামরিচ কেজি প্রতি বিক্রি হয়েছে ২০০ টাকায়। তারও আগে কেজি ছিল দেড়শ টাকা। অল্প সময়ের মধ্যে দ্বিগুণেরও বেশি দাম বেড়ে যাওয়ায় ভোক্তারা বিপাকে।

লাগামহীন এমন দামের কারণ হিসেবে চাহিদার তুলনায় আমদানি কম হওয়ার দোহাই দিচ্ছেন বিক্রেতারা।

লক্ষ্মীপুর শহরের কাঁচামাল পাইকারি ব্যবসায়ী খোরশেদ আলম বাংলানিউজকে বলেন, বর্ষা মৌসুমে কাঁচা মরিচের চাষ কম হয়। তাই বাজারে চাহিদার তুলনায় আমদানি একেবারেই কম। এ জন্য উচ্চমূল্যে কাঁচা মরিচ কিনতে হচ্ছে। খুচরা বাজারে প্রতিকেজি মরিচ বিক্রি হচ্ছে ৩২০ টাকা।

আবদুর রহিম নামে কাঁচামালের খুচরা ব্যবসায়ী বলেন, কাঁচা মরিচের দাম বেশি থাকায় অল্প পরিমাণে বিক্রি হচ্ছে। কেউ ১৫০ গ্রাম, কেউবা আড়াইশ গ্রাম নিচ্ছেন। বিক্রি কমে গেছে।

এ ক্ষেত্রে জ্বালানির মূল্য বৃদ্ধি অনেক প্রভাব ফেলছে বলে মনে করেন ক্রেতা-বিক্রেতারা। তারা বলেন, আগে প্রচুর আমদানি থাকলেও জ্বালানির মূল্য বাড়ার কারণে পরিবহন খরচ বেড়েছে। তাই মরিচসহ সবজির দাম খুব বেশি।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2019 LatestNews
Design & Developed BY ithostseba.com