শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩, ০৩:৫৭ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
আওয়ামী লীগকে রাজপথে দেখে ভীত বিএনপি: তথ্যমন্ত্রী বাংলাদেশে প্রভাব বিস্তারে ৩ পরাশক্তি লড়ছে কুরআন পোড়ানোর প্রতিবাদে সুইডিশ পণ্য বর্জনের আহ্বান হেফাজতের ‘বাবার পরিচয়হীন সন্তানের অভিভাবক মা হবে’ মর্মে রায় দেশের ধর্ম ও সংষ্কৃতির সাথে সাংঘর্ষিক আওয়ামী লীগ মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করে: নানক প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে ছাত্র জমিয়ত ঢাকা মহানগর উত্তরের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত ৪ দিন ধরে হাসপাতালে ভর্তি পরিকল্পনামন্ত্রী কাল পাঠ্যবইয়ের ভুল নিয়ে শিক্ষামন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন দেশের আকাশে পবিত্র রজব মাসের চাঁদ দেখা গেছে আমরা চাই দেশে সত্যিকার ইসলামের জ্ঞান চর্চা হোক: প্রধানমন্ত্রী

বিশাল ক্ষতিপূরণ চেয়ে গুগলের বিরুদ্ধে দুটি মামলা হচ্ছে ইউরোপে

মার্কিন প্রযুক্তিপ্রতিষ্ঠান অ্যালফাবেট ইনকরপোরেশনের অধিভুক্ত প্রতিষ্ঠান গুগল বড় ধরনের ক্ষতির মুখোমুখি হতে যাচ্ছে। প্রতিষ্ঠানের ডিজিটাল বিজ্ঞাপননীতি চর্চার বিরুদ্ধে যুক্তরাজ্য ও নেদারল্যান্ডসের আদালতে দুটি মামলা করতে যাচ্ছে একটি আইনি প্রতিষ্ঠান। দুটি মামলায় সর্বোচ্চ ২ হাজার ৫০০ কোটি ইউরো ক্ষতিপূরণ দাবি করা হতে পারে।

গুগলের ডিজিটাল বিজ্ঞাপনচর্চা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই নাখোশ প্রকাশকেরা। এ নিয়ে তাঁরা সংশ্লিষ্ট নিয়ন্ত্রক প্রতিষ্ঠানের (অ্যান্টিট্রাস্ট) কাছে অভিযোগও করেছেন। প্রকাশকদের কাছ থেকে অভিযোগ পাওয়ার পর গুগলের এই ডিজিটাল বিজ্ঞাপন (অ্যাডটেক) কৌশল সম্প্রতি তদন্তের মুখে পড়ে।

অ্যান্টিট্রাস্ট নিয়ন্ত্রক বলতে মূলত সংশ্লিষ্ট খাতের ব্যবসা-বাণিজ্যসংক্রান্ত নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষকে বোঝায়। কোনো প্রতিষ্ঠান যদি ব্যবসা-বাণিজ্যের ক্ষেত্রে অন্যায্যভাবে পণ্য বা সেবার দাম বেঁধে দেয় বা প্রতিযোগীদের ব্যবসা করতে বাধা দেয় এবং একচেটিয়া বাজার তৈরির সঙ্গে জড়িত থাকে, তাহলে তাতে অ্যান্টিট্রাস্ট আইনভঙ্গ হয়েছে বলে মনে করা হয়।

এর আগে গত বছর ফ্রান্সের নিয়ন্ত্রক সংস্থা গুগলকে ২২ কোটি ইউরো জরিমানা করে। এরপর গুগল তাদের অ্যাডটেক ব্যবসায় প্রতিযোগী ও বিজ্ঞাপনদাতাদের কাছ থেকে অনৈতিক সুবিধা নেয় কি না, তা নিয়ে তদন্তে নামে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও যুক্তরাজ্য।

গতকাল মঙ্গলবার ইউরোপভিত্তিক আইনি প্রতিষ্ঠান গেরাডিন পার্টনার্সের আইনজীবী ডেমিয়েন গেরাডিন এক বিবৃতিতে বলেন, গুগল তার কাজের জন্য দায় নেওয়া এবং গুরুত্বপূর্ণ এই শিল্পের জন্য প্রতিষ্ঠানটি যে ক্ষতি করেছে, তা ফেরত দেওয়ার সময় এসেছে। সে জন্যই ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও যুক্তরাজ্যের প্রকাশকদের জন্য ক্ষতিপূরণ পেতে দুটি মামলা করার পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

এদিকে গুগলের পক্ষ থেকে এই মামলার উদ্যোগের সমালোচনা করা হয়েছে। গুগল দাবি করেছে, ইউরোপজুড়ে প্রকাশকদের সঙ্গে গঠনমূলকভাবে কাজ করে থাকে তারা। গুগলের একজন মুখপাত্র বলেছেন, ‘মামলাটি অনুমানভিত্তিক। অভিযোগের নথি পেলে আমরা এ নিয়ে লড়াই করব।’

নিউজটি শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন

All rights reserved © Jubokantho24.com