রবিবার, ০২ অক্টোবর ২০২২, ০৬:৪৮ অপরাহ্ন

বিশিষ্টজনদের ভালোবাসাতেও সিক্ত বিশ্বজয়ী তাকরিম

যুবকণ্ঠ ডেস্ক:

সৌদি আরবের পবিত্র মক্কায় অনুষ্ঠিত হয়ে গেল ‘৪২তম বাদশাহ আব্দুল আজিজ আন্তর্জাতিক হিফজুল কুরআন প্রতিযোগিতা’। বৈশ্বিক এই আসরে অংশ নিয়ে কৃতিত্বের স্বাক্ষর রাখলো বাংলাদেশের ক্ষুদে হাফেজ সালেহ আহমাদ তাকরিম। প্রতিযোগিতার চতুর্থ গ্রুপে (১৫ পারা গ্রুপ) তৃতীয় স্থান অর্জন করেছে সে। বিরাট এই অর্জনে দেশব্যাপী নানা শ্রেণি-পেশার মানুষের প্রশংসার জোয়ারে ভাসছে তাকরিম।

তাকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বিশিষ্ট ইসলামী আলোচক ও প্রখ্যাত দাঈ মাওলানা মিজানুর রহমান আজহারি। বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে নিজের ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে একটি পোস্টের মাধ্যমে মাওলানা আজহারি এ শুভেচ্ছা জানান।

তিনি তাতে লেখেন, ‘সাবাস তাকরিম! দু’আ ও অভিনন্দন তোমায়। ওর তিলাওয়াতে একটা বিশেষ আবেদন আছে। রীতিমত মন ছুঁয়ে যায়। আমার ভালো লাগে খুব। সাফল্যের এ ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকুক। তাকরিমরা বেশি বেশি জন্ম নিক এ ভূখন্ডে। ছড়িয়ে দিক কুরআনের সুধা বিশ্বময়।

তাকরিমের এই অর্জনে অভিনন্দন জানিয়েছেন বাংলাদেশের জনপ্রিয় লেখক আনিসুল হক। শুক্রবার সকালে পাঠকপ্রিয় উপন্যাস ‘মা’-এর রচয়িতা নিজের ফেসবুক পেজে তাকরিমকে নিয়ে প্রকাশিত প্রথম আলোর একটি নিউজের ছবি পোস্ট করেন। ক্যাপশনে লেখেন, ‘অভিনন্দন, সালেহ আহমাদ তাকরিম।’

ক্ষুদে এ হাফেজকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ক্রিকেটার মুশফিকুর রহিমও। তিনি পুরস্কার হাতে তাকরিমের একটি ছবি পোস্ট করে ইংরেজিতে ক্যাপশন লিখেছেন। যার অর্থ : ‘মাশাআল্লাহ, আলহামদুলিল্লাহ। তোমাকে নিয়ে গর্বিত ছোট ভাই। দয়া করে আমাদের জন্য দোয়া করো।’

সালেহ আহমাদ তাকরিমের এ অর্জনে আনন্দ প্রকাশ করেছেন ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় অভিনেতা ওমর সানী। তিনি তার ফেসবুক পেজে বিশ্বজয়ী তাকরিমের ছবির সাথে বাংলাদেশের একটি জাতীয় পতাকার ছবি শেয়ার করেছেন। ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ্। আন্তর্জাতিক হিফজুল কুরআন প্রতিযোগিতায় ১১১টি দেশকে পিছনে ফেলে আবারও বিশ্ব জয়ী হাফেজ ‘সালেহ আহমেদ ত্বাকরিম-এর ৩য় স্থান অর্জন। এমনই ইসলামের সোনালী আলোয় উজ্জ্বলিত কৃতি সন্তানদের মহিমায় মহিমান্বিত হোক্ আমার সোনার বাংলাদেশ। পরম করুণাময় তোমায় আরো গৌরবোজ্জ্বল জীবন দান করুন। আমিন।’

জনপ্রিয় গায়ক আসিফও তাকরিমকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। তিনি তার ফেসবুকে লিখেছেন,‘আবারো স্বীয় প্রতিভার ঝলক দেখালেন টাঙ্গাইল নাগরপুর ভাদ্রার কৃতি সন্তান হাফেজ সালেহ আহমেদ তাকরীম। হাফেজ তাকরীম রাজধানীর মিরপুরের মারকাযু ফয়জিল কুরআন আল ইসলামী, ঢাকা’র শিক্ষার্থী। হাফেজ তাকরীমের পিতা হাফেজ আব্দুর রহমান একজন মাদরাসা শিক্ষক ও মা গৃহিণী। সৌদি আরবে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক হিফজুল কুরআন প্রতিযোগিতায় ১১১ দেশের মধ্যে শারীরিক অসুস্থ্যতা সত্ত্বেও তৃতীয় স্থান অর্জন করেছেন হাফেজ তাকরীম। এর আগে ইরানের তেহরানে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক হিফজুল কুরআন প্রতিযোগিতার ৩৮তম আসরে সারাবিশ্বে প্রথম স্থান অর্জন করেছেন বাংলাদেশের প্রতিযোগী হাফেজ সালেহ আহমাদ তাকরীম। সাইফুর সাগরের ফেস দ্যা পিপল এর এক আলোচনায় হাফেজ তাকরীমের সাথে কথা বলার সৌভাগ্য হয়েছিল। তাঁকে আমার অসম্ভব চৌকস বুদ্ধিদীপ্ত মেধাবী মনে হয়েছে। বহির্বিশ্ব থেকে দেশের জন্য বয়ে নিয়ে আনা প্রতিটি সম্মানই আমাদের গর্বের বিষয়। হাফেজ তাকরীম এবং তাঁর সম্মানিত শিক্ষকদের জন্য অনেক ভালবাসা শুভেচ্ছা অভিনন্দন রইলো। তার উত্তরোত্তর সফলতা কামনা করি। ভালবাসা অবিরাম…’

ক্রিকেটার রুবেল তাকরিমকে শুভেচ্ছা জানিয়েছে লিখেছেন, `মক্কায় অনুষ্ঠিত ১১১টি দেশের মধ্যে আন্তর্জাতিক কুরআন প্রতিযোগিতায় ৩য় স্থান অর্জন করেছে বাংলাদেশের গর্ব হাফেজ সালেহ আহমদ তাকরিম। মাশাল্লাহ, অনেক অনেক অভিনন্দন ছোট্ট হাফেজকে। দেশের হয়ে আন্তর্জাতিক প্রতিটি অর্জনই গর্বের ও আনন্দের।’

জনপ্রিয় টিভি অভিনেতা সজল নুর তাকরিমকে শুভেচ্ছা জানিয়ে লিখেছেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ্। আন্তর্জাতিক কোরআন প্রতিযোগিতায় তৃতীয়। বাংলাদেশের হাফেজ সালেহ আহমদ তাকরিমকে অভিনন্দন।’

সাবেক ক্রিকেটার আব্দুর রাজ্জাক রাজ লিখেছেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ। মহান অর্জন। আল্লাহ তোমাকে একজন সঠিক মুসলমান হিসেবে কবুল করুক।’

‘খেলবেই বাংলাদেশ’-এর ফাউন্ডার কাজী সাবির বিরাট ব্যানারের সামনে ক্ষুদে হাফেজ তাকরিমের দাঁড়ানো অবস্থার একটি ছবি শেয়ার করেছেন। ক্যাপশনে লিখেছেন,‘দারুণ! ওর অর্জনটা যে কত বড় এটা ব্যানারের সাইজ আর ব্যানারের সামনে ছেলেটার ক্ষুদ্রতা দেখলে বুঝা যায়, নিজের বয়সের তুলনায় কত বড় অর্জন! নিজের ভাষা না তারপরেও সেই অঞ্চলের ভাষাভাষীদের হারিয়ে জয়ী হওয়া অসাধারণ অর্জন! ওকে নিশ্চয়ই অসংখ্যবার শুনতে হয়েছে, ‘আরে মাদ্রাসায় পড়ে কি করবা?’ নিজের নামের বদলে হয়তো ‘হুজুর’ ডাকটাই বেশী শুনতে হবে জীবনে! কিন্তু সেই ‘হুজুর’ই আজকে সে দেশের জন্য সম্মান বয়ে নিয়ে এসেছে!’

সাংবাদিক শারফুদ্দিন আহমেদ তাকরিমের কুরআন তেলাওয়াতের একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন। আর ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘কী মধুর! কী মধুর!’

আরেক সাংবাদিক ফাতেমা আবেদিন নাজলাও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তাকরিমকে। তিনিও বড় ব্যানারের সামনে ক্ষুদে তাকরিমের দাঁড়ানো অবস্থার ছবিটি শেয়ার করেছেন। লিখেছেন,‘ছবিটা দেখেন, কত বড় ওয়ালে লিখা আছে তার কথা। হি হ্যাজ অ্যা ভয়েস। মাশাআল্লাহ’।

এভাবে আরো অনেকে নানাভাবে শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন তাকরিমকে। তাকরিমের এ অর্জনে যেন গোটা দেশই উচ্ছ্বসিত।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2019 LatestNews
Design & Developed BY ithostseba.com