মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩, ০১:২৭ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
আওয়ামী লীগকে রাজপথে দেখে ভীত বিএনপি: তথ্যমন্ত্রী বাংলাদেশে প্রভাব বিস্তারে ৩ পরাশক্তি লড়ছে কুরআন পোড়ানোর প্রতিবাদে সুইডিশ পণ্য বর্জনের আহ্বান হেফাজতের ‘বাবার পরিচয়হীন সন্তানের অভিভাবক মা হবে’ মর্মে রায় দেশের ধর্ম ও সংষ্কৃতির সাথে সাংঘর্ষিক আওয়ামী লীগ মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করে: নানক প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে ছাত্র জমিয়ত ঢাকা মহানগর উত্তরের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত ৪ দিন ধরে হাসপাতালে ভর্তি পরিকল্পনামন্ত্রী কাল পাঠ্যবইয়ের ভুল নিয়ে শিক্ষামন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন দেশের আকাশে পবিত্র রজব মাসের চাঁদ দেখা গেছে আমরা চাই দেশে সত্যিকার ইসলামের জ্ঞান চর্চা হোক: প্রধানমন্ত্রী

প্রস্তুত হচ্ছে ইজতেমা মাঠ; স্বেচ্ছাশ্রমে কাজ করছেন ছাত্র-শিক্ষক মুসুল্লিরা

যুবকণ্ঠ ডেস্ক:

গাজীপুরের টঙ্গীর সোনাভানের শহর তুরাগ নদের তীরে  অনুষ্ঠিত হবে বিশ্ব ইজতেমা। আগামী ১৩ থেকে ১৫ জানুয়ারি জমায়েত হবে ধর্মপ্রাণ মসুল্লিরা। ১৫ জানুয়ারি রোববার আখেরি মোনাজাতের মধ্যদিয়ে আলেমি শুরার  বিশ্ব ইজতেমার সমাপ্তি ঘটবে।

এর আগে আগামী ২, ৩, ৪ ও ৫ ডিসেম্বর স্বল্প পরিসরে ময়দানের উত্তর-পূর্ব কোণে স্থাপিত টিনশেডে দেশ-বিদেশের তিন চিল্লার সাথিদের সমন্বয়ে প্রথম পর্বের আয়োজকদের চার দিনের জোড় ইজতেমা (পুরোনো সাথিদের সম্মেলন) হওয়ার কথা রয়েছে।

ইতোমধ্যে স্বেচ্ছাশ্রমে প্রস্তুত হচ্ছে টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমা ময়দান। ময়দানে কাজ করতে আসা স্বেচ্ছাসেবীরা জানান, তুরাগ তীরের ১৬০ একর সুবিশাল ময়দান প্রস্তুত করতে শত শত স্বেচ্ছাসেবী কাজ করে যাচ্ছেন। ২০২০ সালে ৫৫তম বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠিত হওয়ার পর করোনা মহামারির কারণে গত দুই বছর ২০২১ ও ২০২২ সালে ইজতেমা অনুষ্ঠিত হয়নি। আসন্ন বিশ্ব ইজতেমাকে সামনে রেখে ময়দানের প্রস্ততি কাজ স্বেচ্ছাশ্রমে এগিয়ে চলছে। টঙ্গী, গাজীপুর, তুরাগ, কামারপাড়া, আশুলিয়া, মিরপুর, উত্তরার বিভিন্ন স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসার ছাত্র ও মসজিদের মুসল্লিরা পালাক্রমে কাজ করছেন। কেউ কেউ আগাছা-ময়লা আবর্জনা পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন, মাটি কাটা, পুরোনো ড্রেন সংস্কার,  বাঁশের খুঁটি স্থাপন, পাটের চট দিয়ে সামিয়ানা তৈরি, ময়দানের চারপাশের ওজু-গোসলের চৌবাচ্চাগুলো সংস্কারের কাজে ব্যস্ত রয়েছেন।

সরেজমিন বিশ্ব ইজতেমা ময়দান ঘুরে দেখা যায়, উত্তরা বাইতুল মুমিন মাদরাসার একদল ছাত্র-শিক্ষক স্বেচ্ছাশ্রমে ময়দানে বাঁশের খুঁটি স্থাপন, ময়লা আর্বজনা পরিষ্কারসহ বিভিন্ন কাজ করছেন।

চেরাগ আলী এলাকার বাসিন্দা ফরহাদ হোসেন বাবু মুন্সী তার ছেলে ইশরাক হোসেন রাফি মুন্সীকে নিয়ে ময়দানে স্বেচ্ছায় কাজ করতে এসেছেন। তিনি বলেন, ছেলেকে নিয়ে আল্লাহর রাস্তায় কাজ করতে এসেছি। আগামী জানুয়ারি মাসে অনুষ্ঠিতব্য বিশ্ব ইজতেমা যাতে সফল ও সুন্দরভাবে সম্পন্ন হতে পারে সেজন্য আমরা সবাই মিলে কাজ করে যাচ্ছি। করোনা মহামারির কারণে গত দুই বছর টঙ্গীর ময়দানে ইজতেমা হয়নি। সরকার জানুয়ারি মাসে বিশ্ব ইজতেমা আয়োজনের অনুমতি দেওয়ায় আমরা খুবই খুশি।

ঢাকার মিরপুর থেকে এসে শুক্কুর আলী, বাদল মিয়াসহ ১০-১৫ জনের একদল মুসল্লি ময়দানে স্বেচ্ছাশ্রমে চটের শামিয়ানা তৈরি, ড্রেন পরিষ্কারের কাজ করছেন। তারা জানান, ইজতেমা ময়দানে কাজ করলে আল্লাহ ও তার রাসূলকে (স.) পাওয়া যাবে। দ্বীনের জন্য সবারই উচিত জান-মাল ও সময় ব্যয় করা।

এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে টঙ্গী পশ্চিম থানার ওসি মো. শাহ আলম বলেন, আগামী ১৩ জানুয়ারি প্রথম পর্বের বিশ্ব ইজতেমাকে ঘিরে ময়দানের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে পুলিশ তৎপর রয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন

All rights reserved © Jubokantho24.com