মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩, ১২:৩২ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
আওয়ামী লীগকে রাজপথে দেখে ভীত বিএনপি: তথ্যমন্ত্রী বাংলাদেশে প্রভাব বিস্তারে ৩ পরাশক্তি লড়ছে কুরআন পোড়ানোর প্রতিবাদে সুইডিশ পণ্য বর্জনের আহ্বান হেফাজতের ‘বাবার পরিচয়হীন সন্তানের অভিভাবক মা হবে’ মর্মে রায় দেশের ধর্ম ও সংষ্কৃতির সাথে সাংঘর্ষিক আওয়ামী লীগ মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করে: নানক প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে ছাত্র জমিয়ত ঢাকা মহানগর উত্তরের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত ৪ দিন ধরে হাসপাতালে ভর্তি পরিকল্পনামন্ত্রী কাল পাঠ্যবইয়ের ভুল নিয়ে শিক্ষামন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন দেশের আকাশে পবিত্র রজব মাসের চাঁদ দেখা গেছে আমরা চাই দেশে সত্যিকার ইসলামের জ্ঞান চর্চা হোক: প্রধানমন্ত্রী

মানুষের যখন পতন আসে তখন ইচ্ছার বিরুদ্ধেও ভুল করে: ওবায়দুল কাদের

বিএনপির সাত সংসদ সদস্যকে পদত্যাগের বুদ্ধি যাঁরা দিয়েছেন, তাঁরা অচিরেই পস্তাবেন বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। আওয়ামী লীগ সরকারের এই মন্ত্রী বলেছেন, ‘বিএনপির সাতজন (সংসদ সদস্য) হলেন সিন্ধুর মধ্যে বিন্দু। এই বুদ্ধি যাঁরা দিয়েছেন, তাঁরা অচিরেই পস্তাবেন। এটা ঠিক নয়। লাভ হলো কী? সরকরের পতন হলো? মানুষের যখন পতন আসে তখন ইচ্ছার বিরুদ্ধেও ভুল করে।’

আজ রোববার বিকেলে মানিকগঞ্জ সরকারি উচ্চবিদ্যালয় মাঠে আয়োজিত জেলা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপির সাতজন সংসদ সদস্যের পদত্যাগে সংসদ অচল হবে না উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য এখন ৩০১ জন, প্রয়োজন ১৫১ জন। তারপর ওয়ার্কার্স পার্টি, জাসদ, বিকল্পধারা, তরীকত ফেডারেশন, জাতীয় পার্টি আছে। এ ছাড়া স্বতন্ত্র ও গণফোরামও আছে। তারা তো পদত্যাগ করেনি।’

সম্মেলনে বিএনপির ১০ ডিসেম্বরের কর্মসূচি নিয়ে সমালোচনা করেন সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগকে ফেলে দিলেন না? পল্টনে সমাবেশ করলেন না? পারলেন না? আমি কিন্তু দুদিন আগে বলেছি, সমঝোতা হবে। আমাদের আকাশে কালো মেঘ কেটে যাবে। ১০ ডিসেম্বর আতঙ্ক দূর হয়েছে। মানুষ স্বস্তি পেয়েছে।’ তিনি আরও বলেন, আওয়ামী লীগের শিকড় বাংলাদেশের মাটির অনেক গভীরে। এটাকে ধাক্কা দিয়ে কেউ ফেলে দিতে পারবে না, ১০ ই ডিসেম্বর তা আবার প্রমাণ হয়ে গেছে।

বিএনপির উদ্দেশে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘নোংরা ভাষায় কথা বলবেন না। নোংরা ভাষা যদি আমাদের পক্ষ থেকে বলা হয় তখন কিন্তু পালাবেন। আমরা কিন্তু নোংরা কথা বলিনি। আমরা বেগম খালেদা জিয়া— এই বলি, হাসিনা হাসিনা বলে বেয়াদবের মতো কথা বলি না। লন্ডন থেকে তারেক জিয়া বলে, বিএনপির নেতা-কর্মীরা ওই ভাষা ব্যবহার করেন। নোংরা কথা বললে সমুচিত জবাব দেওয়া হবে। কারা কারা নোংরা কথা বলছেন, সব নোট আছে।’

নিউজটি শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন

All rights reserved © Jubokantho24.com