মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩, ১২:১৩ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
আওয়ামী লীগকে রাজপথে দেখে ভীত বিএনপি: তথ্যমন্ত্রী বাংলাদেশে প্রভাব বিস্তারে ৩ পরাশক্তি লড়ছে কুরআন পোড়ানোর প্রতিবাদে সুইডিশ পণ্য বর্জনের আহ্বান হেফাজতের ‘বাবার পরিচয়হীন সন্তানের অভিভাবক মা হবে’ মর্মে রায় দেশের ধর্ম ও সংষ্কৃতির সাথে সাংঘর্ষিক আওয়ামী লীগ মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করে: নানক প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে ছাত্র জমিয়ত ঢাকা মহানগর উত্তরের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত ৪ দিন ধরে হাসপাতালে ভর্তি পরিকল্পনামন্ত্রী কাল পাঠ্যবইয়ের ভুল নিয়ে শিক্ষামন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন দেশের আকাশে পবিত্র রজব মাসের চাঁদ দেখা গেছে আমরা চাই দেশে সত্যিকার ইসলামের জ্ঞান চর্চা হোক: প্রধানমন্ত্রী

আফগানিস্তানে নির্মিত সুপারকার নিয়ে কেন এতো আলোচনা?

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের রাস্তা পুরু তুষারের চাদরে ঢাকা। সেই রাস্তায় হঠাৎ এসে উদয় হলো অত্যাধুনিক স্পোর্টস কার। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল সেই দৃশ্যের ছবি এবং ভিডিও। যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগানিস্তানে এমন গাড়ি নির্মাণ নিয়েই মূলত এত আলোচনা।

বৃহস্পতিবার আফগানিস্তানে তৈরি প্রথম স্পোর্ট কারটির ডিজাইনাররা এর নৈপুণ্য প্রদর্শন করেছেন। শীতের একটি তুষারময় দিনে কাবুলের রাস্তায় গাড়িটির প্রদর্শনী হয়। প্রিমিয়াম চাকার সঙ্গে কালো রঙের স্পোর্ট কারটি কাবুলের রাস্তায় বেশ দৃষ্টিনন্দন লাগছিল।

‘মাডা ৯’ নামক এই সুপারকারটি তৈরি করেছে ‘এনটপ’ নামের একটি কোম্পানি। আর প্রোটোটাইপ তৈরির সম্পূর্ণ কাজ হয়েছে নাভাভারি সেন্টার অফ টেকনিক্যাল এন্ড ভোকেশনাল এডুকেশন, আফগানিস্তানে। সহয়তায় ছিল আফগানিস্তানের তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রাণলায় এবং তাদের ইনোভেশন সেন্টার।

ডিজাইনার মোহাম্মদ রেজা আহমাদির মতে, এই স্পোর্ট মডেলের গাড়িটি সম্পূর্ণ হতে ৫ বছর লেগেছে। এটি কাতার প্রদর্শনী-২০২৩ এ প্রদর্শিত হতে পারে। ডিজাইনাররা প্রথম মডেলটি তৈরি করতে অন্যান্য যানবাহনের বিভিন্ন অংশ ব্যবহার করেছেন। এর বেশিরভাগ যন্ত্রাংশ টয়োটার।

গাড়িটির বডি তৈরি করা হয়েছে লাইট ওয়েট কম্পোজিট মেটেরিয়াল দিয়ে। বলে রাখা ভালো, যখন দুইটি ভিন্ন ভৌত এবং রাসায়নিক বৈশিষ্ট্য বিশিষ্ট পদার্থ মিলে নতুন একটি যৌগ তৈরি করা হয় তখন তাকে কম্পোজিট মেটেরিয়াল বলে। এছাড়া এর কাঠামো তৈরি করা হয়েছে ফর্মুলা-১ রেসে ব্যবহৃত গাড়িগুলোতে ব্যবহৃত টিউব্যুলার চেসিস অনুযায়ী।

গাড়টি চালানো সম্ভব হলেও এখন বাণিজ্যিকভাবে উৎপাদন শুরু হচ্ছে না। গাড়িটির প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান এনটপির সিইও মুহাম্মদ রেজা আহমাদির মতে, তাদের মূল লক্ষ্য ছিল নতুন একটি ডিজাইন মডেল তৈরি করা। বাণিজ্যিক ভাবে উৎপাদনে গেলে ভেতরে কী কী যন্ত্রাংশ বসবে তা সম্পূর্ণ অন্যান্য বড় গাড়ি নির্মাতা কোম্পানি এবং বিনিয়োগকারীদের ওপর নির্ভর করবে।

কোম্পানিটির লক্ষ্য এবছরে কাতারের দোহায় আয়োজিত এক্সিবিশনে গাড়িটি উপস্থাপন করা। আফগানিস্তান গত ৪৪ বছরে ক্রমাগত রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতার মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। দেশটি এখন পর্যন্ত মোটরগাড়ি শিল্পে কিছুই করেনি। এখনও এই শিল্পে কোনও আন্তর্জাতিক বিনিয়োগকারী আগ্রহ দেখায়নি।

নিউজটি শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন

All rights reserved © Jubokantho24.com